মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ৪ মাঘ ১৪২৮
দৈনিক ইত্তেফাক

শীতে সুন্দরী থাকতে ত্বক ও চুলে নজর দিন

আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:৪০

শীতকাল আসতে না আসতেই ত্বক এবং চুলে নানান পরিবর্তন লক্ষ করা যাচ্ছে। আবহাওয়ার পরিবর্তন শুরু হতেই ত্বক শুষ্ক হতে শুরু করেছে। একইভাবে স্কাল্প শুষ্ক হওয়ার কারণে দেখা দিচ্ছে খুশকির সমস্যা। ফলে শীতকালে ত্বক এবং চুলে সমস্যা লেগেই থাকে। কীভাবে এমন হিমেল আবহাওয়ায় ত্বক এবং চুলের যত্ন নিয়ে সুন্দরী থাকবেন, জেনে নিন।

শীতকালের আবহাওয়ার সঙ্গে ত্বক এবং চুলের মানিয়ে নিতে কিছুটা সময় তো লাগেই। ত্বকে আর্দ্রতা কমে যাওয়ায় শুষ্কভাব দেখা দেয়। এ সময়ে শরীরেও জলীয়ভাব কমে যায়। যার ক্ষতিকর প্রভাবে ত্বকে এবং চুলের স্বাস্থ্যেও ঘাটতি তৈরি হয়। ত্বকে বিভিন্ন ইনফেকশনও দেখা যায় শীতের মৌসুমটাতে। শীতকালে ত্বক হোক কিংবা চুল—নিজেকে সুন্দর রাখতে নজর দেওয়া দরকার লাইফস্টাইল এবং খাদ্যাভ্যাসে।

শীতকালে ত্বক হোক কিংবা চুল—নিজেকে সুন্দর রাখতে নজর দেওয়া দরকার লাইফস্টাইল এবং খাদ্যাভ্যাসে

শীতে ত্বকের যত যত্ন

  • শীতে ত্বকের যত্নে ব্যবহার করুন গ্লিসারিন। গ্লিসারিনে অল্প পানি মিশিয়ে মাঝেই মাঝেই মেখে নিতে পারেন। এতে ত্বকের শুষ্ক ভাব কমবে।
  • ত্বককে শুষ্কতা থেকে বাঁচাতে সবচেয়ে কার্যকরী হলো অ্যালোভেরা জেল। শীতে ঠোঁটকে আর্দ্র রাখে এমন লিপ বাম ব্যবহার করুন। আর বাইরে বের হওয়ার ৩০ মিনিট আগে সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।
  • ভালো ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন। ত্বককে কোমল ও মসৃণ রাখতে ব্যবহার করুন নারকেল তেল, মধু ও অলিভ অয়েল। আর ময়েশ্চারাইজার লাগানোর আগে ত্বকের মরা কোষ অবশ্যই পরিষ্কার করে নেবেন।
  • গোসলে গরম পানি ব্যবহার করে আরাম অনুভব করলেও গরম পানি দিয়ে মুখ-মাথা ধোয়া থেকে বিরত থাকবেন। অতিরিক্ত গরম পানি মুখের ত্বকের ফলিকলগুলোকে ক্ষতিগ্রস্ত করে ফেলে, যা ত্বককে আর্দ্র রাখতে সাহায্য করে।
  • প্রচুর পানি খাবেন। প্রতিদিন শাকসবজি খাওয়ার চেষ্টা করুন। যাদের পুরোনো চর্মরোগ আছে প্রয়োজনে আগে থেকেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন।

 শীতকালে ত্বক এবং চুলে সমস্যা লেগেই থাকে। তাই হিমেল আবহাওয়ায় ত্বক এবং চুলের বিশেষ যত্ন নিতে হবে

শীতের চুলের যত্ন

শীতে প্রতিদিনের জীবনযাপনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় চুল। স্ক্যাল্পের শুষ্কতা, ঠিকঠাক চুল পরিষ্কার না করা, ভুল ডায়েট—এসব কারণে খুশকির মতো উপসর্গ জাঁকিয়ে বসতে পারে মাথায়। তাই সুন্দর চুলের পাশাপাশি মাথায় খুশকির সমস্যা এড়াতে সপ্তাহে শুধু একদিন নয় সম্ভব হলে প্রতিদিনই চুলের যত্ন নিন।

  • শীতে আপেল সিডার ভিনেগার দিয়ে চুল ধুতে পারেন। এতে চুলে থাকা চটচটে বা রাসায়নিক তরল পদার্থগুলো চলে যাবে। এবং শীতেও চুলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ধরে রাখা যাবে।
  • শীতে চুলের রুক্ষতা দূর করতে তেলে ব্যবহার করুন। সপ্তাহে দুদিন তেল দেওয়া চুলে গরম পানি দিয়ে ভেজানো তোয়ালে পেঁচিয়ে রেখে ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। দেখবেন শীতেও চুল থাকছে ঝলমলে।
  • এক বাটি পানির সঙ্গে এক চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন। এরপর এক চামচ আপেল সিডার ভিনেগার এক বাটি পানির সঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। আর চুল নরম করার জন্য কন্ডিশনার হিসেবে মধু মেশাতে পারেন। আগের মতো ৪-৫ মিনিট রেখে চুল ধুয়ে ফেলুন।
  • মেথি স্বাস্থ্যের পক্ষে যতটা ভালো, চুলের পক্ষেও ততটাই। আধ কাপ পানিতে দুই টেবিল চামচ মেথি ভিজিয়ে রাখুন সারারাত। পরের দিন ব্লেন্ডারে দিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। আধঘণ্টা এই পেস্টটা মাথায় লাগিয়ে রেখে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেললে খুশকির সমস্যা কমবে।
ইত্তেফাক/আরএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ফ্রিকেলস, তিল থেকে যেন তাল না হয়

রূপচর্চায় পান পাতা 

কম ঘুমে ত্বকের যত ক্ষতি 

যেভাবে শীতে ত্বক ও পা ফাটা রোধে করবেন 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

মুখ অবাঞ্ছিত দাগে ভরে গেছে? রইল ঘরোয়া সমাধান  

ত্বকের যত্নে পুদিনা

ঠোঁট ফেটেছে শীতে 

চুল নিয়ে যত ভুল