বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নাফ নদী থেকে রোহিঙ্গা তরুণীর মরদেহ উদ্ধার

আপডেট : ১৮ ডিসেম্বর ২০২১, ১৩:৩৫

কক্সবাজারের টেকনাফের নাফ নদী থেকে এক রোহিঙ্গা তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্বজনদের দাবী, দালালের খপ্পরে পড়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নদী পাড়ি দিতে গিয়ে নৌকা ডুবির ঘটনায় তার মৃত্যু হয়। শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) বিকেলে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত আসমা আক্তার (১৯) মিয়ানমারের মংডু থানার হাড়ি পাড়ার গ্রামের বাসিন্দা মো. ছালামের মেয়ে ও উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরের ২০ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা। তার স্বামী মালয়েশিয়া থাকেন।

শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) বিকেলে স্থানীয় জেলেরা নাফ নদীতে একটি লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে টেকনাফ মডেল থানার একদল পুলিশ রাতে পৌরসভার হেচ্ছার খাল সংলগ্ন নাফ নদী থেকে রোহিঙ্গা তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে টেকনাফ থানায় নিয়ে যায়।

মৃত তরুণীর চাচা ইসমাঈল বলেন, আসমা উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরের ২০ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দীর্ঘ আড়াই বছর ধরে বাস করছে। গত ১৪ নভেম্বর টেকনাফে আমার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলো। ১৬ ডিসেম্বর হঠাৎ সে নিরুদ্দেশ হয়ে যায়। সারাদিন খুঁজে না পেয়ে সন্ধ্যায় জিডি করা হয়। বাসা থেকে গোপনে বেরিয়ে স্থানীয় কোন জেলের নৌকায় মিয়ানমারে যাওয়ার পথে নৌকা ডুবে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা তার।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি (অপারেশন) খোরশেদ আলম জানান, ভাতিজি নিখোঁজের বিষয়ে আসমার চাচা ইসমাঈল টেকনাফ মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন ১৬ ডিসেম্বর। তা তদন্তের জন্য গিয়ে নাফ নদীতে লাশ ভাসার খবর পায় পুলিশ। পরে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। এটা হত্যা না কোন দুর্ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ইত্তেফাক/এমআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

টেকনাফে অস্ত্র-গুলির খোসাসহ ২ রোহিঙ্গা আটক

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশনারের ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন  

পাসপোর্ট করতে এসে রোহিঙ্গা তরুণী আটক

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করলেন ইউএনএইচসিআর প্রধান ফিলিপ্পো গ্রান্ডি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সেন্টমার্টিন সমুদ্র এলাকায় মিললো ৩ লাখ ইয়াবা

সমুদ্র পথে মালয়েশিয়ার উদ্দেশে যাত্রা, ৩৩ রোহিঙ্গা আটক

গ্যাসের চুলার আগুনে দগ্ধ পিতাপুত্রসহ ৩ রোহিঙ্গার মৃত্যু

নাফনদীতে জেলেদের জালে মিললো ২৫ কেজি ওজনের কচ্ছপ