বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

কাজাখস্তান ইস্যু

বিজয় দাবি পুতিনের 

আপডেট : ১১ জানুয়ারি ২০২২, ০৪:২৬

কাজাখস্তানকে রক্ষা করে জয়ের দাবি করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তিনি কাজাখস্তানের সংঘাতকে বিদেশি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসী বিদ্রোহ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। এছাড়া রুশ এই প্রেসিডেন্ট সাবেক সোভিয়েত দেশের নেতাদের কাছে প্রতিজ্ঞা করেছেন যে মস্কো-নেতৃত্বাধীন জোট তাদেরও রক্ষা করবে। 

সোমবার সাবেক সোভিয়েত রাষ্ট্রগুলোর কালেকটিভ সিকিউরিটি ট্রিটি অর্গানাইজেশনের (সিএসটিও) ভার্চুয়াল শীর্ষ সম্মেলনে পুতিন বলেন, এই সংস্থা কাজাখ রাষ্ট্রের ভিত্তির অবক্ষয়, অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতির অবনতি, সন্ত্রাসবাদী, অপরাধী, লুটেরা এবং অন্যান্য অপরাধমূলক কাজ থেকে রক্ষা করেছে। 
 
তিনি আরও বলেন, কাজাখস্তানের যা ঘটেছে আমাদের রাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার প্রথম এবং শেষ প্রচেষ্টা থেকে দূরে নয়। সিএসটিওর নেয়া পদক্ষেপগুলো স্পষ্টভাবে দেখিয়েছে ঘরের মধ্যে এমন পরিস্থিতি আমরা সহ্য করবো না। 

জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ পরিস্থিতি মোকাবিলায় কাজাখস্তানের প্রেসিডেন্ট কাসিম জোমার্ট তোকায়েভ রুশ সেনাবাহিনীর সহযোগিতা চান। এরপরই প্রায় আড়াই হাজার সেনা পাঠায় রাশিয়ায়। 

প্রায় এক সপ্তাহ ধরে রক্তাক্ত বিক্ষোভের পর কাজাখের বৃহত্তম শহর আলমাটি প্রায় শান্ত অবস্থায় ফিরেছে। মধ্য প্রেদেশের এই দেশটি স্বাধীনতার ৩০ বছর পর এমন সংঘাত দেখলো। 

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা রাস্তা থেকে ধ্বংসাবশেষ অপসারণ করছে। যা এখনও পোড়া গাড়িতে জমে আছে। এদিকে এরই মধ্যে বেশিরভাগ দোকান খুলেছে, গণপরিবহন চালু হয়েছে। এছাড়া বুধবারের পর প্রথমবারের মতো শহরে কয়েক ঘণ্টার জন্য ইন্টারনেট চালু করা হয়।

দেশটিতে গত এক সপ্তাহ থেকে চলা দাঙ্গায় অন্তত ১৬৪ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে দেশটির বৃহত্তম শহর আলমাটিতে নিহত হয়েছেন ১০৩ জন। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে গত রবিবার এই তথ্য জানিয়েছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম। এছাড়া দেশটির নিরাপত্তা রক্ষী সাত হাজারের বেশি জনকে আটক করেছেন। তথ্যসূত্র: আল জাজিরা।   

ইত্তেফাক/এসআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন