শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

টোঙ্গায় মৃতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা

আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ২১:৫৭

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশ টোঙ্গার হুঙ্গা টোঙ্গা-হুঙ্গা হা'আপাই আগ্নেয়গিরিতে শনিবার অগ্নুৎপাতের কারণে পাঁচ থেকে দশ মিটার উঁচু সুনামি ঢেউ তৈরি  হয়েছিল বলে জানিয়েছে দেশটির নৌবাহিনী৷ এখন পর্যন্ত দুজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে৷ বিমানবন্দর চালু না থাকায় এবং যোগাযোগে সমস্যা হওয়ায় উদ্ধার তৎপরতা চালাতে সমস্যা হচ্ছে৷

অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত টোঙ্গার ডেপুটি হেড অফ মিশন কার্টিস টু'ইহালাঙ্গিঙ্গি মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) জানান, সুনামির কারণে ১৬৯টি দ্বীপের দেশ টোঙ্গার ছোট দ্বীপগুলোতে অনেক ক্ষতি সাধন হয়েছে৷ তিনি বলেন, নিউজিল্যান্ড ডিফেন্স ফোর্সের তোলা ছবিতে দেখা গেছে ম্যাঙ্গো দ্বীপের একটি পুরো গ্রাম ধ্বংস হয়ে গেছে৷ পাশের আটাটা দ্বীপের অনেক ভবন ভেঙে গেছে৷ ‘‘সম্ভবত সেখানে আরও মৃত্যুর খবর পাওয়া যেতে পারে,’’ রয়টার্সকে বলেন তিনি৷

আটাটা দ্বীপে প্রায় ১০০ জন ও ম্যাঙ্গো দ্বীপে প্রায় ৫০ জন মানুষ বাস করেন৷ হুঙ্গা টোঙ্গা-হুঙ্গা হা'আপাই আগ্নেয়গিরি থেকে আটাটা ও ম্যাঙ্গো দ্বীপের দূরত্ব যথাক্রমে প্রায় ৫০ ও ৭০ কিলোমিটার৷

শনিবার ঐ আগ্নেয়গিরিতে অগ্ন্যুৎপাতের শব্দ প্রায় দুই হাজার ৩০০ কিলোমিটার দূরের নিউজিল্যান্ড থেকেও শোনা গেছে৷ টোঙ্গার নিউজিল্যান্ড হাইকমিশন দেশটির মূল দ্বীপ টোঙ্গাটাপুতে ক্ষয়ক্ষতির খবর দিয়েছে৷ ঐ দ্বীপেই টোঙ্গার রাজধানী নুকুআলোফা অবস্থিত৷ সেখানে অনেক রিসোর্ট রয়েছে৷

জাতিসংঘ বলছে, কৃত্রিম উপগ্রহ থেকে পাওয়া ছবিতে দেখা গেছে টোঙ্গাটাপুর পশ্চিম উপকূলে অনেক ঘরবাড়ি ও রিসোর্ট ভেঙে গেছে৷

আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের কারণে সাগরের নীচে থাকা ক্যাবল কেটে যাওয়ায় টোঙ্গা প্রায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে৷ অগ্ন্যুৎপাতের ছাইয়ের কারণে বিমানবন্দরেও প্লেন নামতে পারছে না৷ অস্ট্রেলিয়ার প্যাসিফিক মন্ত্রী জেড সেসেলিয়া আশা করছেন বিমানবন্দর হয়ত বুধবার চালু হতে পারে৷

ইত্তেফাক/এএইচপি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ভয়াবহ বন্যা উত্তর-পূর্ব ভারতে, আসামে মৃত ৭১

খাদের কিনার থেকে শ্রীলঙ্কাকে টেনে তুলতে ‘উদ্ধার প্রকল্প'

ভারতে ১৬ বছরেই বিয়ে করতে পারবে মুসলিম মেয়েরা

মধ্য এশিয়ায় শক্তি বাড়াচ্ছে চীন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ায় নতুন রোগের প্রাদুর্ভাব

আসাম ও মেঘালয়ে বন্যার অবনতি, মৃত্যু বেড়ে ১৬

অবশেষে কিয়েভে গেলেন শলৎস

রাশিয়ার সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তার প্রতি চীনা সমর্থন আছে: শি জিনপিং