বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

দীর্ঘ ১৮ বছরেও নির্মিত হয়নি ধীরাশ্রম কনটেইনার ডিপো

আপডেট : ১৯ জানুয়ারি ২০২২, ০১:২৩

দীর্ঘ ১৮ বছরেও ধীরাশ্রম কনটেইনার ডিপো নির্মিত হয়নি। এমনকি দুবাইয়ের ডিপি ওয়ার্ল্ডের ২০১৯ সালের বিনিয়োগ প্রস্তাবেরও কোনো অগ্রগতি নেই। রেলওয়ে থেকে উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) দেড় বছর ধরে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে পড়ে আছে। সরকার ঢাকা শহরের যানজট কমানো এবং বিপুল পরিমাণ কনটেইনার হ্যান্ডলিং ও পণ্য পরিবহন সহজীকরণের লক্ষ্যে ঢাকার কমলাপুর থেকে অভ্যন্তরীণ কনটেইনার ডিপো (আইসিডি) সরিয়ে গাজীপুরের ধীরাশ্রমে নেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করে। চট্টগ্রাম বন্দর কতৃ‌র্পক্ষের প্রস্তাবনা অনুযায়ী ২০০৩ সালে প্রকল্প গ্রহণের উদ্যোগ নেওয়া হয়। তাছাড়া চট্টগ্রাম বন্দর ও মোংলা বন্দর থেকে আসা কনটেইনারসমূহ সংরক্ষণসহ পুরো দেশে রেলের মাধ্যমে কনটেইনার ভর্তি পণ্য পরিবহনের জন্য ধীরাশ্রমে আইসিডি নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়।

ইতিমধ্যে পদ্মা সেতুতে রেললাইন স্থাপনের ফলে চট্টগ্রাম এবং মোংলা বন্দর থেকে উত্তরাঞ্চলে কনটেইনার পরিবহনে আর ঢাকায় প্রবেশ করতে হবে না। এর মাধ্যমে ভারত, নেপাল ও ভুটানের সঙ্গে ট্রানজিট চালু হলে ওই দেশগুলো থেকে আসা কনটেইনার ধীরাশ্রম আইসিডিতে রাখা যাবে। ডেমরা-জয়দেবপুর ইস্টার্ন বাইপাস ও ধীরাশ্রম রেল স্টেশনের নিকটবর্তী ১০০ একর জমি নিয়ে ধীরাশ্রম আইসিডি নির্মাণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়। ধীরাশ্রম আইসিডি ঢাকা-চট্টগ্রাম সেকশনের পূবাইল রেলস্টেশন থেকে রেল লিংকের মাধ্যমে সংযুক্ত হবে। এটি নির্মিত হলে বছরে ৩ লাখ ৬৮ হাজার কনটেইনার হ্যান্ডলিং সম্ভব হবে। বর্তমানে ঢাকার কমলাপুর আইসিডিতে বছরে মাত্র ৯০ হাজার কনটেইনার হ্যান্ডলিং হয়ে থাকে। প্রকল্পটির ব্যাপারে চবক ও বাংলাদেশ রেলওয়ের পক্ষ থেকে নৌপরিবহন সমন্বিত প্রস্তাবও দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে ২০০৩ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রকল্পের জনবল নির্ধারণ-সংক্রান্ত কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। ২০০৪ সালের জুলাই মাসে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভার সিদ্ধান্তে পূর্ণাঙ্গ সম্ভাব্যতা যাচাই করার সিদ্ধান্ত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিদেশি দুটি যৌথ পরামর্শক প্রতিষ্ঠান সম্ভাব্যতা যাচাই করে। ২০০৭ সালের জুন মাসে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হয়। প্রকল্পটি সব দিক থেকে গ্রহণযোগ্য বলে সুপারিশ করা হয়। পরে তৎকালীন ওয়ান ইলেভেনের সরকারের সময় যোগাযোগ উপদেষ্টা প্রকল্পটি রেলওয়ে কতৃ‌র্ক বাস্তবায়নের নির্দেশ দেন।

জানা যায়, প্রকল্পটি চবক কতৃ‌র্ক বাস্তবায়নের আগ্রহ থাকলেও যোগাযোগ উপদেষ্টার সভাপতিত্বে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভায় রেলওয়ে বিভাগ দ্বারা এটি বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত হওয়ায় চবক প্রকল্পের সব ডকুমেন্ট রেলওয়েকে হস্তান্তর করে। ২০০৭ সালের পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের প্রতিবেদন অনুযায়ী প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয় প্রায় ৪৫০ কোটি টাকা, যার বেশির ভাগ অর্থায়ন আইডিএ এম্পটাপ গ্র্যান্ড থেকে পাওয়ার কথা বলা হয়েছিল। পরবর্তী সময়ে রেলওয়ে বিভাগ প্রকল্পটি বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করে এবং মাস্টারপ্ল্যানের অন্তভু‌র্ক্ত করা হয়। এরপর প্রকল্পটি এডিবির অর্থায়নে বাস্তবায়নের প্রচেষ্টা নেওয়া হয়। কিন্তু তাতেও সাড়া না পাওয়ায় শেষ পর্যন্ত পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি)-এর অধীনে বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত হয়। ২০১৯ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি জিটুজি পদ্ধতিতে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দুবাই সরকারের ডিপি ওয়ার্ল্ড এবং সরকারের পিপিপি কতৃ‌র্পক্ষের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। সে অনুযায়ী ২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর দুবাইয়ে ডিপি ওয়ার্ল্ড এবং দুবাই চেম্বারের যৌথ উদ্যোগে প্ল্যাটফর্ম মিটিং অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মিটিংয়ে বন্দরসংক্রান্ত আরও কয়েকটি প্রকল্পের ব্যাপারেও সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হয় বলে জানা যায়। এরপর এ পর্যন্ত প্রকল্পটির ব্যাপারে কোনো অগ্রগতি অর্জিত হয়নি।

বাংলাদেশ রেলওয়ের প্রধান পরিকল্পনা কর্মকর্তা সলিমুল্লাহ বাহার জানান, ধীরাশ্রম প্রকল্পের উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) প্রায় দেড় বছর আগে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে দেওয়া হয়েছে। তা যাচাই-বাছাই চলছে। চট্টগ্রাম বন্দর কতৃ‌র্পক্ষের এক কর্মকর্তার মতে, প্রকল্পটি রেলওয়ে বিভাগে না পাঠিয়ে চবকের অধীনে থাকলে বাস্তবায়ন বহু আগেই হয়ে যেত। অথচ প্রকল্পটি বর্তমানে বাস্তবায়নে ব্যয় কয়েক গুণে বৃদ্ধি পাবে। তাছাড়া প্রকল্পটি দ্রুত বাস্তবায়নের প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। সংশ্লিষ্টদের মতে, দেশের প্রধান রেল স্টেশন কমলাপুর হওয়ায় এখানে ‘মালটি মোডাল কমিউনিকেশন হাব’ তৈরির সম্ভাবনা রয়েছে। একইসঙ্গে মেট্রোরেল লাইন কমলাপুর পর্যন্ত বর্ধিত করার কাজ চলছে। এর ফলে ভবিষ্যতে কমলাপুর আইসিডি বন্ধ কিংবা সংকুচিত হয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ কারণে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে রেলে পরিবহনকৃত কনটেইনার রাখার জন্য বিকল্প আইসিডি জরুরি।

ইত্তেফাক/টিএ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

কাউখালীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন

পিরোজপুর জেলার শ্রেষ্ঠ সহকারী কমিশনার (ভূমি) জান্নাত আরা তিথি

পানিতে ভাসছে সিলেট-সুনামগঞ্জ

আখাউড়ায় শিয়ালের মাংস বিক্রি!

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

জৈন্তাপুরে বন্যার পরিস্থিতির অবনতি, পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ ৬ ইউনিয়ন পানির নিচে

রংপুরে টেবিল টেনিসে স্বর্ণজয়ী হৃদয়

কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা