রোববার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

শিক্ষার্থীকে ধাক্কা দিয়ে হত্যা, বাসের চালক-হেলপার গ্রেফতার

আপডেট : ২৪ মার্চ ২০১৯, ০৮:২৬

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ওয়াসিম তাহসিনকে যাত্রীবাহী উদার পরিবহন থেকে ধাক্কা দিয়ে হত্যার অভিযোগে বাস হেলপার মাসুক আলীকে (৩৮) আটক করেছে পুলিশ। তিনি সুনামগঞ্জ পৌর শহরের তেঘরিয়া এলাকার মৃত দৌলত আলীর ছেলে।

 

শনিবার রাত দুইটার পরে মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে ছাতক উপজেলার সিংচাপইড় ইউনিয়নের সিংচাপইড় গ্রামে তার শ্বশুরবাড়ী থেকে আটক করা হয়।

 

পুলিশ সূত্র জানায়, শনিবার সকালে ময়মনসিংহের সরিষাবাড়ী থেকে সিলেটগামী উদার পবিরহনের বাসে হবিগঞ্জ থেকে শেরপুরে আসার সময় ভাড়ার টাকা নিয়ে ওয়াসিমের সঙ্গে হেলপার ও চালকের সাথে কথাকাটি হয়। একপর্যায়ে বাস চালকের নির্দেশে হেলপার শিক্ষার্থী ওয়াসিমসহ দুজনকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দেয়। এ সময় ওয়াসিম ও অন্য শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হন।

 

তাদেরকে দ্রুত সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর বিকাল সাড়ে চারটায় ওয়াসিম মারা যান। এ ঘটনায় সিলেটসহ সারাদেশে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভের ঝড় ওঠে। বিভিন্ন স্থানে বাসে আগুন দিয়েছে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার বরকতুল্লাহ খানের নির্দেশে রাত দেড়টায় হেলপার মাসুক আলীকে ছাতক উপজেলার সিংচাপইড় থেকে আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। তার আগে বাসের চালককে আটক করা হয়।

 

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মো. বরকতুল্লাহ খান রাত সাড়ে তিনটায় তাত্ক্ষণিকভাবে প্রেস ব্রিফিংকালে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঘাতক হেলপার মাসুক আলীকে শ্বাসরুদ্ধকার দেড়ঘন্টা অভিযানের মাধ্যমে তার শ্বশুরবাড়ী সিংচাপইড়র গ্রাম থেকে আটক করতে সক্ষম হয়। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে বাসের সুপারভাইজারকে ঘটনার জন্য দায়ী করে। তাকে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

 

ইত্তেফাক/এএম