মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মির্জাপুরে বাইকার গ্রুপ ও কিশোর গ্যাংয়ের হাতে জিম্মি এলাকাবাসী

আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১১:৫৫

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়েছে বাইকার গ্রুপ ও কিশোর গ্যাং গ্রুপের শতাধিক সক্রিয় সদস্য। মোটরবাইক চালিয়ে অপরাধ করে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে কিশোর গ্যাং গ্রুপের এই সন্ত্রাসীরা। বাইক নিয়ে অপরাধ করে সহজেই সটকে পড়ছে এই গ্রুপের সদস্যরা। 

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরাও এদের কাছে অসহায় হয়ে পড়েছে। উঠতি বয়সের কিশোররা এসব অপরাধের সঙ্গে জড়িত। সড়ক মহাসড়কে দল বেঁধে বেপরোয়া মোটরসাইকেল চালানো, স্কুল-কলেজের ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করা, চুরি, ডাকাতি ছিনতাই, চাঁদাবাজি, মারামারি, মাদক ব্যবসা এবং অপহরণসহ সমাজের নানা অপরাধের সঙ্গে এই গ্রুপের সদস্যরা জড়িত। মির্জাপুর পৌরসভা ও ১৪ ইউনিয়নসহ এলাকা ভিত্তিক রয়েছে এসব কিশোর গ্যাং গ্রুপের সদস্যদের অবাধ বিচরণ।

জানা গেছে, মির্জাপুর পৌরসভা ও ১৪ ইউনিয়নের ৫০-৬০ স্পটে কিশোর গ্যাং গ্রুপের শতাধিক সন্ত্রাসী বাহিনী নানা অপরাধ করে যাচ্ছে। একটি বাইকে তিন-চার জন উঠে রাস্তা দখল করে বিভিন্ন অঙ্গ-ভঙ্গিতে মোটরসাইকেল চালিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। এই ফাঁকে নিরীহ লোকজনকে জিম্মি করে তারা ছিনতাই, ডাকাতি করে সটকে পড়ে। গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার মোড়, স্কুল-কলেজের সম্মুখ, হাইওয়ে রোড, বিভিন্ন কোচিং সেন্টার এবং বাসাবাড়ির সামনে এদের আড্ডা। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এই প্রতিনিধির কাছে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেন, পৌরসভার মির্জাপুর এস কে পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও এস কে পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের আশপাশ, থানা রোড, বাওয়ার রোড, শহিদ মিনার রোড, পুরাতন বাস স্টেশন, মির্জাপুর বাইপাস, বাইমহাটি প্রফেসরপাড়া, কালীবাড়ী রোড, পোষ্টকামুরী জহুরবাড়ি মোড়, ডাকবাংলো, সওদাগরপাড়া, মির্জাপুর ট্রেন স্টেশন, গোড়াইল, বাওয়ার কুমারজানি, কুতুব বাজার, মির্জাপুর বাবু বাজার, সরিষাদাইর, ঢাকা-টাঙ্গাইল মাসড়কের ১০-১২ টি স্পটে কিশোর গ্যাং গ্রুপের সদস্যদের আস্তানা রয়েছে। এছাড়া পৌরসভার বাইরেও ৫০-৬০ স্পটে কিশোর গ্যাং গ্রুপের শতাধিক সদস্য অপরাধ করে যাচ্ছে। ফলে এলাকায় আইনশৃঙ্খলার চরম অবনতি হয়েছে।

গত জানুয়ারি থেকে চলতি মাসের ৮ তারিখ পর্যন্ত ২২টি চুরি, ছিনতাই ১২টি, খুন চারটি, গরু চুরির ঘটনা আটটি, সাতটি মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ গত ১ ফেব্রুয়ারি পোষ্টকামুরী ও গোড়াইল গ্রামের কিশোর গ্যাং গ্রুপের মধ্যে অস্ত্রের মহড়া ও হামলার ঘটনা, ৭ ফেব্রুয়ারি মির্জাপুর থানার প্রধান গেটের কাছে কাশেম মিয়ার দোকানে চুরির ঘটনা এবং ৮ ফেব্রুয়ারি মির্জাপুর ট্রেন স্টেশনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক মেধাবী ছাত্র স্বপন তরফদার (৫০) কিশোর গ্যাং গ্রুপের সদস্যদের হাতে হামলার শিকার হন।

এ ব্যাপারে ভূমি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য খান আহমেদ শুভ এমপি বলেন, কিশোর গ্যাং, বাইকার গ্রুপসহ এলাকায় মাদক ব্যবসা বেড়ে গেছে। আইনশৃঙ্খলার উন্নয়ন এবং মাদক নিমূ‌র্লসহ কিশোর গ্যাং গ্রুপের সদস্যদের গ্রেফতারের জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলম চাঁদ বলেন, স্থানীয় এমপির নির্দেশনায় কিশোর গ্যাংসহ মাদক ও বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের তালিকা তৈরি হচ্ছে। অপরাধের সঙ্গে যাদের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যাবে কোনো অবস্থায় তাদের ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

ইত্তেফাক/ আরাফাত

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

নাগরপুরে মাদকসহ মাদককারবারি গ্রেফতার  

চলন্ত বাসে ডাকাতি-ধর্ষণ: ৬ আসামি ৩ দিনের রিমান্ডে

মির্জাপুর রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ১৪ ইউপি চেয়ারম্যানকে সংবর্ধনা  

টাঙ্গাইলে চলন্ত বাসে ডাকাতি-ধর্ষণ: মূলহোতাসহ গ্রেফতার ১০

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বাসচাপায় কনস্টেবল নিহত, অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন ওসি 

সড়ক দুর্ঘটনায় বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর প্রকৌশলী নিহত

বিশেষ সংবাদ

মির্জাপুরে রোগীরা রিপ্রেজেন্টেটিভ-চক্রের হাতে ‘জিম্মি’

মধুপুরে চলন্ত বাসে ডাকাতি-ধর্ষণ: আরও ২ আসামি গ্রেফতার