মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

গল্প জমিয়ে হাসপাতাল থেকে শিশু চুরি

আপডেট : ০৬ মার্চ ২০২২, ১৮:১১

যশোর হাসপাতাল থেকে শিশু চুরির ঘটনা ঘটেছে। রবিবার (৬ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। চুরি হওয়া শিশুটির বয়স ৮ দিন। শিশুর মা আসমা খাতুন ও বাবা মেহেদী হাসান জনি ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ পৌর শহরের বাসিন্দা। সংসারের প্রথম সন্তান হারিয়ে ভেঙে পড়েছেন শিশুটির মা-বাবা।  

হাসপাতাল ও স্বজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি কালীগঞ্জ কুইন্স হাসপাতালে সিজারের মাধ্যমে সন্তান জন্ম দেন আসমা খাতুন। জন্মের পর থেকে নবজাতক গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে ওই শিশুকে যশোর শিশু হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। শিশু হাসপাতালে ৭ দিন চিকিৎসা শেষে রবিবার বেলা ১১টার দিকে চিকিৎসক নবজাতকটিকে সুস্থ ঘোষণা করে রিলিজ করে দেন। শিশুটির বাবা গাড়ি আনতে হাসপাতালের বাইরে যান। এ সময় শিশুর মা ও নানির সঙ্গে এক নারী গল্প শুরু করেন। একপর্যায়ে ওই নারী শিশুটির দেখাশোনা করবেন জানিয়ে শিশুটির মা ও নানিকে বাড়ি যাওয়ার জন্য গুছিয়ে নিতে বলেন। শিশুর মা ও নানি ফিরে এসে দেখেন- ওই নারী ও শিশুটি নেই। অনেক   খোঁজাখুঁজি করে শিশুকে না পেয়ে তারা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানান।

একমাত্র সন্তানকে হারিয়ে বারবার হাসপাতাল বেডে মূর্ছা যাচ্ছে মা আসমা খাতুন।

মেহেদী হাসান জনি জানান, সকালে হাসপাতালের চিকিৎসক রাউন্ড শেষে আমার ছেলেরে রিলিজ দিয়ে দেয়। তার পর ছেলে ও তার মারে বাড়ি নেওয়ার জন্য একটা ইজিবাইক আনতে গেছিলাম। নিচে ইজিবাইক দাঁড় করে এসে শুনি আমার ছেলেরে কে যেন চুরি করে নিয়ে গেছে। অনেক খোঁজাখুজি করেও আমার ছেলেটার খোঁজ পাইনি।

শিশু হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সৈয়দ নূর ই হা মিম জানান,  পুলিশ প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। এখানে আমাদের নিরাপত্তার কোনো ঘাটতি ছিল না। বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

যশোর ডিবির ওসি রুপন কুমার সরকার জানান, পুলিশ তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে। হাসপাতালের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে।
 

 

ইত্তেফাক/ইউবি