বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভাণ্ডারিয়ায় জাতীয় যুবসংহতির দোয়া মোনাজাত ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া মোনাজাত 

আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০২২, ২১:১৩

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ায় সোমবার জাতীয় পার্টি-জেপির অঙ্গ যুবসংগঠন জাতীয় যুবসংহতির উপজেলা কমিটির নেতৃবৃন্দের উদ্যোগে শেখ কামাল অডিটোরিয়ামে এক ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 

এ উপলক্ষে ইফতারের পূর্বে এক আলোচনা সভায় জাতীয় যুবসংহতির উপজেলা আহ্বায়ক মো. রেজাউল হক রেজভী জোমাদ্দারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টি-জেপির উপজেলা যুগ্ম আহ্বায়ক ও পৌর কাউন্সিলর মো. গোলাম সরওয়ার জোমাদ্দার।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-ওয়ার্কস পার্টির উপজেলা সভাপতি এবং সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান খান মো. রুস্তুম আলী, জেপি নেতা মো. জামাল হোসেন লিটন, ভিটাবাড়ীয়া ইউনিয়ন জেপির সভাপতি মো. রেজা আহম্মেদ দুলাল, যুবসংহতির উপজেলা সদস্য সচিব মো. মামুনুর রশিদ সরদার,পৌর যুবসংহতির সদস্য সচিব মো. সাইদুল ইসলাম মুন্সি,ধাওয়া ইউনিয়ন যুবসংহতির সভাপতি মো. লিটন তালুকদার, তেলিখালী ইউনিয়ন যুবসংহতির সভাপতি মো. রিপন মির্জা,ইকড়ি ইউনিয়ন সভাপতি মো. হাসান জোমাদ্দার, গৌরীপুর ইউনিয়ন যুবসংহতির মো. সুজন তালুকদার প্রমুখ।

এ সময় মঞ্চে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-ইন্দুরকানী উপজেলা জেপির সভাপতি ও পত্তাশী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শাহিন হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক ও ইন্দুরকানী সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো.মাসুদ করিম ইমন, কাউখালী উপজেলা জেপির সহ-সভাপতি মো. নুরুল আমীন, সাধারণ সম্পাদক মো. মঞ্জুরুল মাহফুজ পায়েল, ভাণ্ডারিয়া উপজেলা জেপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও ইকড়ি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান তানভির হোসেন বাবু তালুকদার, জেপি নেতা শফিকুল আলম খোকন সিকদার, শাহারিয়ার হোসেন দুলাল মল্লিক, মো. মোশারফ সরদার মো. সেন্টু মোল্লা, স্বেচ্ছা সেবক পার্টির সভাপতি মো. মনির সরদার,বন্দর ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আব্দুস সালাম খোন্দকার, যুবলীগের মো. খাইরুল ইসলাম কাইয়ুম জোমাদ্দার, নদমুলা শিয়ালকাঠী ইউনিয়ন যুবসংহতির সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক বাবু,ছাত্রলীগের মো. রুবেল খান, ছাত্র সমাজের মো. মেহেদী হাসান রাজু, মাহাবুব শরীফ শুভসহ ভাণ্ডারিয়া,কাউখালী,ইন্দুরকানী উপজেলা জাতীয় পার্টি-জেপি,যুবসংহতি,ছাত্রসমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

ইফতার মাহফিল। ছবি: ইত্তেফাক

সভায় প্রধান অতিথিসহ ভাণ্ডারিয়া-কাউখালী-ইন্দুরকানী উপজেলা জেপির জ্যেষ্ঠ নেতারা ছাড়াও ১৪দলীয় শরিক ওয়ার্কাস পার্টির নেতা তাদের বক্তব্যে বলেন, ২০২৩ সালের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনকে ঘিরে এখনই একটি স্বার্থান্বেষী মহল অপতৎপরতায় নেমে পড়েছে। তাদের সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে ধারণা থাকা উচিত। তারা জাতীয় পার্টি-জেপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীর সঙ্গে গায়ে পড়ে সাংঘর্ষিক অবস্থার অপ্রয়াসের চেষ্টা শুরু করেছে। এমনকি দলে ফাটল ধরাবার জন্য নানা ধরনের কৌশল অবলম্বন করছে বলেও আমরা দেখতে পাচ্ছি। অনেককে প্রলুব্ধ করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। আমাদের নেতা আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি দীর্ঘ ৩৯ বছর ধরে এই ভাণ্ডারিয়াসহ তার নির্বাচনী এলাকায় ভিন্ন ভিন্ন দল মতের মানুষকে ঐক্য বদ্ধ রেখে উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। বর্ষীয়ান এই রাজনীতিক কখনোই তার নির্বাচনী এলাকায় ভোটের রাজনীতি করেন নি। তিনি সব সময়েই বলে আসছেন স্বাধীন দেশে আপনারা যার যে মতাদর্শ ভালো লাগে সে দল করবেন। তবে ঝগড়া ফ্যাসাদ করলে বা অনৈক্য থাকলে কখনোই এলাকার উন্নয়ন হয়না। তার এই নির্দেশনা মেনে আমরা চলার চেষ্টা করি বিধায় আজ তার নির্বাচনী এলাকা ভাণ্ডারিয়া, কাউখালী ও ইন্দুরকানীর মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারছে। 

তারা বলেন, ২০২৩ সালে যে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে সে নির্বাচনকে ঘিরে যে ষড়যন্ত্র চলছে সে বিষয়ে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ সবসময় চোখ কান খোলা রেখে সামাজিকভাবে ঐ সব ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করতে আমরা সকলে ঐক্যবদ্ধ থাকব। আমাদের নেতা প্রায় দীর্ঘ ৩৮বছর বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব সফলভাবে পালন করে আসছে। বিদ্যুৎমন্ত্রী থাকাকালীন বরিশাল, ভাণ্ডারিয়াসহ এ দক্ষিণাঞ্চলে বিদ্যুতের ব্যবস্থা করেছে। যোগাযোগমন্ত্রী থাকাকালীন সময়ে রাজধানী ঢাকার সঙ্গে দেশের সব জেলা উপজেলার যোগাযোগ উন্নত করতে সক্ষম হয়েছেন। তবে তিনি কখনোই ভোটের রাজনীতি করেন নাই। আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর জন্য আমরা আজ এত সব সুফল ভোগ করতে পারছি। যে ইন্দুরকানীর মানুষ এক সময়ে নানা কারণে হেনস্থা হত আজ তারা নির্বিঘ্নে সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পারছে। তাই আমাদের উচিত প্রতি পাঁচ বছর পর একটি নির্বাচন আসে। সে সময় দলমত নির্বিশেষে নারী-পুরুষ সবাই মিলে তাকে একটি ভোট দেওয়া। 

তারা বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে এখন থেকেই উপজেলা, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড পর্যায়ের সব নেতা-কর্মী ঐক্যবদ্ধভাবে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে জাতীয় পার্টি-জেপির উন্নয়নের বার্তা পৌঁছে দিতে হবে। যাতে ষড়যন্ত্রকারীরা বলতে না পারে এটা, ওটা আমরা করেছি। পিরোজপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচন করার জন্য এ তিনটি উপজেলার সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মী সবসময় ঐক্যবব্ধ থাকবেন। আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকলে আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর হাত শক্তিশালী হবে এবং তিনি সংসদে আমাদের ন্যায্য হিস্যা আদায় করতে পারবেন ইনশাল্লাহ। তাই নিজেদের মধ্যে সামান্য মান অভিমান থাকলেও তা পরিহার করে জাতীয় স্বার্থে সবাই ঐক্যবব্ধ থাকার আহবান জানানো হয়।

এর পরে জাতীয় পার্টি-জেপির চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপির সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মো. জহির উদ্দিন। দোয়া মোনাজাত শেষে ইফতারে আমন্ত্রিত অতিথিরা অংশ নেন।

ইত্তেফাক/এএএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

অধ্যক্ষকে লাঞ্ছনা: গ্রেফতার ৪ তরুণ রিমান্ড শেষে কারাগারে

ঈদ উপহার নিয়ে এতিম শিশুদের পাশে মুক্তির বন্ধন ফাউন্ডেশন 

সামনে ঈদ, সিলেট-সুনামগঞ্জের অর্ধকোটি মানুষ অসহায়

বাঘায় বিদ্যুৎ বিভ্রাটে জনজীবন অতিষ্ঠ 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

পদ্মা সেতু দিয়ে মোটরসাইকেল পারাপারের সময় ৩ ট্রাকচালক আটক

নববধূ সেজে ইয়াবা পাচার!  

পরীক্ষার রেজাল্ট নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না প্রিয়ন্তির 

গো-খাদ্য ও ওষুধ তৈরির কারখানা সিলগালা, লাখ টাকা জরিমানা