শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য হলেন বাকৃবির অধ্যাপক জাকির

আপডেট : ২৬ এপ্রিল ২০২২, ১৫:১৬

চার বছরের জন্য কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন অধ্যাপক ড. এ কে এম জাকির হোসেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোছা. রোখছানা বেগম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এবং ছাত্রবিষয়ক উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল)  তাকে নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে বলা হয়েছে, রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলরের (আচার্য) অনুমোদনক্রমে কুড়িগ্রাম  কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০২১ এর ধারা ১০ (১) অনুযায়ী বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড.  এ. কে. এম জাকির হোসেনকে কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর (উপাচার্য) পদে নিয়োগ করা হলো। 

আগামী চার বছর তিনি এ পদে থাকবেন। তবে রাষ্ট্রপতি চাইলে যেকোনো সময় এ নিয়োগ বাতিল করতে পারবেন বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী মাে. মকবুল হােসেন ও জামিলা খানমের পুত্র  জাকির হোসেন ১৯৬৯ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর রংপুর জেলার বদরগঞ্জ থানার অন্তর্গত উত্তর বাউচান্দি পাকের মাথা গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন।

প্রফেসর ড.এ.কে.এম. জাকির হােসেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতি স্নাতক ও ফসল উনি বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এম.এস ডিগ্রী অর্জন করেন। পরে তিনি গিফু ইউনির্ভাসিটি, জাপান (The Gifu University, Japan) থেকে প্লান্ট ফিজিওলজি এন্ড বায়ােকেমিষ্ট্রি বিষয়ে পিএইচ ডি এবং জাপান ইন্টারন্যাশনাল রিসার্চ সেন্টার ফর এগ্রিকালচারাল সায়েন্স (Japarn International Research Center for Agricultural Sciences, Tsukuta, Japan) থেকে পোস্ট ডক্টরাল সম্পন্ন করেন।  অধ্যাপক ড.এ.কে.এম. জাকির হােসেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগে ১৯৯৭ সালে প্রভাষক হিসেবে শিক্ষকতা পেশায় যোগ দেন। পরবর্তীতে ২০০০ সালে সহকারী অধ্যাপক , ২০০৫ সালে সহযােগী অধ্যাপক এবং ২০১০ সালে তিনি অধ্যাপক  পদে উন্নীত হন।  

তিনি ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের প্রধান, বিশ্ববিদ্যালয়ের বােটানিক্যাল গার্ডেনের কিউরেটর, ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা, প্রােক্টর, পরিচালক,  বিশ্ববিদ্যালয় সিকিউরিটি কাউন্সিল, পরিচালক পরিবহন শাখা, সাধারণ সম্পাদক বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাব, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সংগঠন গণতান্ত্রিক শিক্ষক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি নির্বাচিত যুগ্ম সম্পাদক ও সহ -সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন বাকৃবি এবং শিক্ষা ও গবেষণা কাজের পাশাপাশি বিভিন্ন প্রশাসনিক দায়িত্বসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে কর্মরত ছিলেন। অধ্যাপক  জাকির  অনেক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সেমিনার, সিম্পোজিয়াম ও কনফারেন্সে যােগদান করে গবেষণালব্ধ প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এবং বিভিন্ন টেকনিক্যাল সেশনে চেয়ারপারসনের দায়িত্ব পালন করেছেন। তার লেখা ৫টি গবেষণামূলক প্রবন্ধ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। 

এ বিষয়ে অধ্যাপক ড. এ.কে.এম. জাকির হোসেন বলেন, রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী আমাকে যে নতুন দায়িত্ব দিয়েছেন আমি চেষ্টা করব তা সঠিক ভাবে পালন করার। বিশ্ববিদ্যালয়টিকে বিশ্বমানের করতে আমি চেষ্টা করে যাবো। উত্তরের কৃষিকে উন্নত করতে কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আমি মনে করি। তাই উত্তরের কৃষি এবং কৃষক যেন এই বিশ্ববিদ্যালয় দ্বারা উপকৃত হয় সেই লক্ষ্যে কাজ করবো ।

ইত্তেফাক/এআই

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

জবি ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত 

বিশেষ সংবাদ

বেসরকারি কলেজ কোন বিধিমালায় চলবে ?

কোচিং-বাণিজ্য বন্ধের নীতিমালা বাস্তবায়নের হার শূন্য!

ঈদের পর খুলবে শাবিপ্রবি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির মেধাতালিকা প্রকাশ বিকালে

সিকৃবিতে ক্লাস-পরীক্ষা স্থগিত

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু

বিশেষ সংবাদ

‘ভাচু‌র্য়ালি’ ক্লাস করে এসএসসি পরীক্ষা