বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

কাহালু বেতার কেন্দ্র: ৩ যুগেও চালু হয়নি সরাসরি সম্প্রচার

আপডেট : ০৭ মে ২০২২, ১৩:১৮

প্রতিষ্ঠার তিন যুগ পেরিয়ে গেলেও চালু হয়নি বগুড়ায় বাংলাদেশ বেতার কাহালু কেন্দ্রটির সরাসরি অনুষ্ঠান সম্প্রচার। উত্তরাঞ্চলের মধ্যে প্রচার সক্ষমতার দিক থেকে অধিক ক্ষমতাসম্পন্ন কেন্দ্রটিতে রেকর্ডিং স্টুডিও না থাকায় শুধু ভবনটি দাঁড়িয়ে আছে। স্থানীয় অনুষ্ঠান সম্প্রচার না হওয়ায় বঞ্চিত এ অঞ্চলের সাংস্কৃতিক কর্মী, কলাকুশলী ও সংবাদকর্মীরা। ১৯৮৭ সালে ১০০ কিলোওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন এই বেতারকেন্দ্রটি নির্মাণ করা হয়।

সংশ্নিষ্ট সূত্র জানায়, বাংলাদেশে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন যে পাঁচটি বেতারকেন্দ্র রয়েছে তার একটি এটি। এই কেন্দ্রের ফ্রিকোয়েন্সি ৮৪৬ কিলোহার্জ ও তরঙ্গ দৈর্ঘ্য ৩৫৪ দশমিক ৬০ মিটার। এখানে বর্তমানে প্রকৌশল ও প্রশাসনিক শাখা রয়েছে। এই বেতারকেন্দ্রে রয়েছে ট্রান্সমিটার, জেনারেটর ও এসটিএল। ২৫ একর জমির ওপর ৮ কোটি ৫১ লাখ ৬ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয় এই বেতারকেন্দ্রটি। বর্তমানে এই বেতারকেন্দ্রে কর্মরত রয়েছেন ৩৭ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী। নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছেন ১২ জন পুলিশ। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৬টা থেকে ১০টা এবং বেলা ১২টা থেকে রাত ১১টা ১০ মিনিট পর্যন্ত শুধু বাংলাদেশ বেতার রাজশাহী কেন্দ্রের অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে। বর্তমানে বাংলাদেশ বেতারের ঢাকা ক, খ, গ কেন্দ্র ছাড়াও চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, রংপুর, সিলেট, বরিশাল, ঠাকুরগাঁও, রাঙ্গামাটি, কক্সবাজার, কুমিল্লা, বান্দরবান কেন্দ্র চালু আছে। বাংলাদেশ বেতারের ঢাকা কেন্দ্রের আওতায় ঢাকা এফ এম ব্যান্ডের চারটি কেন্দ্র নিয়মিত প্রচার চালাচ্ছে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, রংপুর, কুমিল্লা ও ঠাকুরগাঁও বেতারকেন্দ্র এফ এম ব্যান্ডে প্রচার চালাচ্ছে। বগুড়া জনপদে রয়েছে ইতিহাসখ্যাত পুরাকীর্তির বহু নিদর্শন। সেই পুরাকীর্তির নিদর্শনের সন্ধানে এখানকার অসংখ্য শিল্পী, সাহিত্যিক, নাট্যজন, সাংবাদিক, কলাকুশলী কাজ করছেন। প্রাচীন পুণ্ড্রনগরীকে ঘিরে লেখা হয়েছে নাটক, গল্প, গান, জারি, পালাগানসহ অনেক কিছু। এগুলো জনসমক্ষে পরিবেশন করা হলেও রেকর্ড বা সংরক্ষিত হচ্ছে না। এই বেতারকেন্দ্রটিকে পূর্ণাঙ্গ করার দাবিতে কয়েক বছর ধরেই আন্দোলন করে আসছেন অত্র অঞ্চলের সাংস্কৃতিক কর্মীরা। একাধিকবার স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে।

বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক তৌফিক হাসান ময়না জানান, এই বেতারকেন্দ্রটি পূর্ণাঙ্গ হিসেবে নিজস্ব অনুষ্ঠান সম্প্রচারে গেলে এই অঞ্চলের শিল্পী, কলাকুশলী ও সংবাদকর্মীরা তাদের প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পাবেন। সৃষ্টি হবে কর্মসংস্থান। উপকৃত হবেন এই অঞ্চলের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

কাহালু বেতারকেন্দ্রের আবাসিক প্রকৌশলী শহিদুর রহমান জানান, পূর্ণাঙ্গ বেতারকেন্দ্র করার জন্য যা যা প্রয়োজন সেই প্রস্তাবনা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে দেওয়া হয়েছে এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীকে বিষয়টি মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে।

ইত্তেফাক/ ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সারিয়াকান্দিতে গোখাদ্যের দাম বৃদ্ধিতে উদ্বিগ্ন খামারিরা

ভাঙছে যমুনা, ঝুঁকিতে জনপদ-বসতবাড়ি

বগুড়া শহরের ১৪ এলাকায় গ্যাস থাকবে না তিন দিন

যমুনার ভাঙনে বাঁধের ১০০ মিটার বিলীন, আতঙ্কে নদী এলাকার মানুষ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

দুর্নীতির মামলায় বিএনপির সাবেক এমপির ৭ বছর জেল

বগুড়ায় পাঁচ হাজার লিটার সয়াবিন তেল ন্যায্যমূল্যে বিক্রি

থানায় জিডি করায় বৃদ্ধা শাশুড়ির মাথা ফাটালেন পুত্রবধূ

মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির মামলায় যুবক গ্রেফতার