শনিবার, ২১ মে ২০২২, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সিপিইসি নিয়ে চীন-পাকিস্তান হতাশা বাড়ছে 

আপডেট : ০৮ মে ২০২২, ১৮:৩২

চীনের জিনজিয়াং প্রদেশ থেকে বেলুচিস্তানের গোয়াদর পর্যন্ত চলমান এক সময়ের বহুল পরিচিত চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর (সিপিইসি) ক্রমশ অকার্যকর হয়ে পড়ছে। এর ফলে চীন ও পাকিস্তানের মধ্যে হতাশা বাড়ছে। এক মিডিয়া রিপোর্টের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রকল্পের আওতাধীন বড় প্রকল্পে প্রয়োজনীয় তহবিল সংগ্রহে সমস্যা হচ্ছে এবং সমাপ্ত প্রকল্পগুলো বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এতে আরও বলা হয়েছে, পাকিস্তান সরকার এখন সিপিইসি কর্তৃপক্ষকেও বিলুপ্ত করেছে, যা মসৃণ এবং দ্রুত উন্নয়নের জন্য প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

বেইজিং অবকাঠামো প্রকল্পের জন্য প্রতিশ্রুত তহবিল ছাড়তে নারাজ। এদিকে, চীনা কোম্পানিগুলোও বকেয়া পরিশোধের দাবিতে সিপিইসি প্রকল্পে বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে। 

সিপিইসি ঋণে উচ্চ-সুদের হার, ক্রমবর্ধমান প্রকল্প ব্যয়, দুর্বল প্রকল্প এবং সিপিইসি অবকাঠামোর ওপর আক্রমণ প্রধান সমস্যা। এতে প্রকল্পের স্বপ্ন ফিকে হতে বসেছে। 

সিপিইসি বৃহত্তর বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের (বিআরআই) অংশ হিসেবে চালু করা হয়েছিল। যা ২০১৩ সালে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বিশ্বব্যাপী মনোযোগ আকর্ষণ করেছিলেন। কিন্তু সবকিছু পরিকল্পনা মতো হয়নি এবং পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় দেশটি ঋণের মধ্যে পড়েছে। 

 

 

ইত্তেফাক/এসআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

চীনা ভাষা অবমাননায় উইঘুর শিক্ষকের সাজা 

ডলার বাঁচাতে ৩৮ পণ্যের আমদানি নিষিদ্ধ করলো পাকিস্তান

বনে আগুন লাগানো সেই নারী টিকটকারের নামে মামলা

১৩২ আরোহী নিহত: ‘চীনের সেই বিমান দুর্ঘটনা সম্ভবত ইচ্ছে করেই’

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিশ্বে সবচেয়ে বেশি কারাবন্দি চীনের উইঘুর মুসলিমরা

অরুণাচল সীমান্তে চীনের তৎপরতা: ভারতীয় সেনা

‘জিরো কোভিড’ নীতি থাকলেও সাংহাইয়ে লাখ লাখ লোক ঘরবন্দি 

আক্রমণ ছাড়াই পাকিস্তানকে দাস বানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র: ইমরান খান