শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ইমামের বিরুদ্ধে ৩ বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগ 

আপডেট : ০৯ মে ২০২২, ১৯:৪৩

রংপুরের পীরগাছায় ৩ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে মাহফুজার রহমান নামে একজন মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধ। এ ঘটনায় মামলা দায়ের হলেও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। বর্তমানে গুরুতর অসুস্থ শিশুটি রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এদিকে, ঘটনার পাঁচদিন অতিবাহিত হওয়ার পরও অভিযুক্ত গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষুদ্ধ ভিকটিমের পরিবার ও এলাকাবাসী। পলাতককে দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় নেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয়রা। 

সোমবার (৯ মে) দুপুর ১২টার দিকে পীরগাছা উপজেলার বড়দরগাহ্ বাজারে মানববন্ধন করেন তারা।

এলাকাবাসীর দাবি, অভিযুক্তকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করো হোক।

জানা যায়, অভিযুক্ত মাহফুজার রহমান (৩০) নাগদাহ কেরামতিয়া মসজিদে ইমামতি করেন। পাশাপাশি তিনি একটি মাদরাসার শিক্ষক। 

এলাকাবাসী ও ভিকটিমের পরিবারের সদস্যরা জানান, গত ৫ মে বৃহস্পতিবার পীরগাছা উপজেলার কল্যাণী ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের তৈয়ব বিলবাড়ী গ্রামে বাড়ির পাশে খেলা করছিলেন ৩ বছরের শিশু। এসময় প্রতিবেশী মফিজুর রহমান মৌলভীর ছেলে মাহফুজার রহমান চকলেট ও খেলনা দেওয়ার সুযোগে নিজের থাকার ঘরে শিশুটিকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টায় চালানো হয় অমানবিক নির্যাতন। এতে রক্তক্ষরণ শুরু হলে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত। 

ঘটনার পরদিন শুক্রবার (৬ মে) শিশুর পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি প্রথমে পীরগাছা থানায় এবং পরে মাহিগঞ্জ থানা পুলিশকে অবগত করা হয়। মাহিগঞ্জ থানা থেকে পুলিশ এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে রমেক হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে নিয়ে যান। এ ঘটনায় শিশুর মা বাদী হয়ে মাহিগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

কল্যাণী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূর আলম বলেন, ‘একজন ইমামের এমন অপরাধ গ্রামের সবাইকে হতবাক করে দিয়েছে। অভিযুক্ত মাহফুজারকে দ্রুত আইনের আওতায় না নেওয়াতে এলাকাবাসী বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছে। কোনোভাবেই সে যেন আইনের ফাঁক গলিয়ে পার না পায়, তা নিশ্চিত করতে হবে।’  

রংপুর জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান রোজি রহমান বলেন, ‘এ ঘটনায় আমি ধিক্কার ও নিন্দা জানাই। অভিযুক্ত ওই ইমামের চূড়ান্ত শাস্তি দাবি করছি। মসজিদ ও মাদরাসার যারা পরিচালনায় রয়েছে, তাদের এই বিষয়গুলো যাচাই করে দেখা উচিত।’ 

এদিকে, অভিযুক্তের স্বজনরা বলছেন, ধর্ষণের মতো স্পর্শকাতর মিথ্যা অভিযোগ তুলে মামলা করেছে বাদীপক্ষ। 

তাদের দাবি, জমি সংক্রান্ত ও পারিবারিক বিরোধের জের থেকেই সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করতে ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে। এনিয়ে রোববার (৮ মে) দুপুরে রংপুর রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনে নিজের স্বামীকে নির্দোষ দাবি করে ঘটনাটি ষড়যন্ত্রমূলক বলছেন অভিযুক্ত ইমামের স্ত্রী সাথী বেগম। 

অভিযুক্তের বড় ভাই মুক্তার হোসেন বলেন, ‘আমার ভাইকে এর আগেও এমন একটি মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু আদালত থেকে মাহফুজার নির্দোষ প্রমাণিত হয়েছে। এখন নতুন করে আবার ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। এই ঘটনা যদি সত্য না হয়, তাহলে হয়রানি করার জন্য আমিও মিথ্যা অভিযোগকারীদের বিচার দাবি করছি।’
 
রংপুর মহানগর পুলিশের (আরপিএমপি) উপ-পুলিশ কমিশনার আবু মারুফ হোসেন বলেন, ‘আমরা অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে চেষ্টা করছি। আশা করছি খুব শিগগির তাকে আমরা গ্রেপ্তার করতে পারবো। আর আইনগত যেসব প্রক্রিয়া আছে, নির্যাতিতার যেসব সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার দরকার তা আমরা যথাযথভাবে দিচ্ছি।’

ইত্তেফাক/এএইচ/এএইচপি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে নয়া সমীকরণের আভাস

উখিয়ার পালংখালী থেকে ভুয়া চিকিৎসক গ্রেফতার 

ক্যাম্পে অপরাধ দমনে প্রয়োজনে সেনা মোতায়েন করা হবে: স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী

দলীয় কর্মসূচি থে‌কে ফেরার পথে ট্রাক চাপায় বিএন‌পি নেতার মৃত্যু

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

কালের সাক্ষী আদমজীর জানালা কপাটবিহীন বড় জামে মসজিদ

সাহিত্য একাডেমির আয়োজনে নজরুল জন্মোৎসব

বিশেষ সংবাদ

সিলেটে বন্যায় হাজার কোটি টাকার ক্ষতির আশঙ্কা

মিরসরাইয়ে র‌্যাবের ওপর হামলা: গ্রেফতার আতঙ্কে ব্যবসায়ীরা