সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পুঠিয়ায় ৯২ হাজার লিটার সয়াবিন তেল জব্দ, আটক ৫ 

আপডেট : ১০ মে ২০২২, ২১:০৮

রাজশাহীর পুঠিয়ার বানেশ্বর বাজারে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে মজুদ রাখা ৯২ হাজার ৬১৬ লিটার সয়াবিন তেল জব্দ করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১০মে) বিকালে রাজশাহী জেলা ও পুঠিয়া থানা পুলিশ যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে এসব তেল জব্দ করে। পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত রমজান মাস থেকে এসব তেল বেশি দামে বাজারে বিক্রির জন্য মজুদ করেছিলেন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। 

তিনি আরও জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার বিকালে রাজশাহী জেলা ও পুঠিয়া থানা পুলিশের একটি দল বানেশ্বর বাজারে অভিযান শুরু করে। একে একে চার ব্যবসায়ীর ৪টি গোডাউনে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে পাওয়া যায় বিপুল পরিমাণ সয়াবিন তেল। এছাড়া একজন ব্যবসায়ীর ট্রাক থেকে পাওয়া যায় বিপুল পরিমাণ সয়াবিন তেল। সন্ধ্যার দিকে জব্দ করা তেল পরিমাপ করা হয়। এতে দেখা যায়, শুধু ৫ ব্যবসায়ীই মজুদ করেছিলেন ৯২ হাজার ৬১৬ লিটার সয়াবিন তেল। তেল মজুদ সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সংশ্লিষ্ট ৫ ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। 

ওসি জানান, আটক ৫ ব্যবসায়ীর মধ্যে ‘সরকার অ্যান্ড সন্স’ এর মালিক বিকাশ সাহার গোডাউন থেকে ৪৮ ড্রাম সয়াবিন ও ২৬ ড্রাম পামওয়েল, ‘এন্তাজ স্টোর’ এর মালিক এন্তাজ হাজির গোডাউন থেকে ২২ ড্রাম সয়াবিন ও ১২০ ড্রাম পামওয়েল, ‘মেসার্স পাল অ্যান্ড ব্রাদার্সে’র মালিক শৈলেন পালের গোডাউন থেকে ৩ ড্রাম সয়াবিন ও ১০০ ড্রাম পামওয়েল, ‘রিমা স্টোরে’র মালিক রাজিব সাহার গোডাউন থেকে ৪৮ ড্রাম সয়াবিন ও ২৭ ড্রাম পামওয়েল এবং ব্যবসায়ী ফজলুর রহমানের ট্রাক থেকে ৬০ ড্রাম পামওয়েল তেল জব্দ করা হয়। প্রতিটি ড্রামে ২০৪ লিটার করে ভোজ্য তেল রয়েছে বলে জানান ওসি।

রাজশাহী জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতেখায়ের আলম জানান, সোমবার জেলার বাগমারা উপজেলার তাহেরপুর বাজার থেকে প্রায় ২৮ হাজার হাজার লিটার সয়াবিন তেল জব্দের পর মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফায় পুঠিয়ার বানেশ্বরে অভিযান চালানো হয়। তাহেরপুরে ২৭ হাজার ৯০০ লিটার তেল পাওয়া গেলেও বানেশ্বরে চারটি গোডাউন ও একটি ট্রাক থেকে প্রায় ৯৩ হাজার লিটার তেল পাওয়া গেছে। তিনি বলেন, জনস্বার্থে জেলা পুলিশের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এদিকে মঙ্গলবার (১০ মে) সকাল থেকে দুপুরে পর্যন্ত অবৈধভাবে সয়াবিন তেল মজুদ ও নির্ধারিত দামের অতিরিক্ত দামে তেল বিক্রি করার অভিযোগে রাজশাহীর তিন ব্যবসায়ীকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক অপূর্ব অধিকারী ও সহকারী পরিচালক হাসান আল মারুফ নগরীতে এই অভিযান চালান।

অভিযান শেষে সহকারী পরিচালক হাসান আল মারুফ জানান, মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত তারা নগরীর সাহেব বাজার ও বহরমপুর এলাকায় অভিযান চালান। এসময় সাহেববাজার এলাকার মেসার্স হুমায়ুন স্টোরে ১৩২ বোতল সয়াবিন তেল মজুদ পাওয়া যায়। বোতলজাত সয়াবিন তেল মজুদ রেখেছিলেন বিক্রেতা হুমায়ুন কবীর। এই ঘটনায় তাকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একইসঙ্গে জব্দকৃত ১৩২ বোতল সয়াবিন তেল গায়ের দামে বিক্রি করে ব্যবসায়ীকে অর্থ প্রদান করা হয়েছে। একই অভিযানে সাহেববাজার এলাকার মেসার্স পাপ্পু অ্যান্ড ব্রাদার্সকেও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানটির মালিক নজরুল ইসলাম নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বাড়তি দামে বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি করছিলেন। 

তিনি বলেন, আলাদা অভিযানে নগরীর বহরমপুর মোড় এলাকার মেসার্স নুরুন্নবি ট্রডার্সকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বাড়তি মূল্যে খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি করছিলেন প্রতিষ্ঠানটির মালিক নুরুন্নবী। তাৎক্ষণিকভাবে এই তিন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে জরিমানা আদায় করে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা করা হয়েছে। জনস্বার্থে এই অভিযান চলমান বলে জানিয়েছেন সহকারী পরিচালক হাসান আল মারুফ। 

ইত্তেফাক/এএএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সিলেটে বন্যা: শুধু মৎস্য খাতে ক্ষতি ২৬ কোটি টাকা

সিলেট

বন্যায় বিশুদ্ধ পানির সংকট

বিশেষ সংবাদ

ফুটপাত হকারদের দখলে, বাধ্য হয়ে মূল সড়কে পথচারীরা!

দুই বছর পর মনোহরগঞ্জে আবারও পত্রিকা সরবরাহ শুরু

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বরিশালে ভূমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন

মাঠেই নষ্ট হচ্ছে ধান, হাজার টাকায়ও মিলছে না শ্রমিক 

সিলেটে বন্যায় কৃষিজমি পানির নিচে, খাদ্য সংকটের আশঙ্কা

পাহাড়ি ঢল কিছুটা থামলেও বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত সিলেটে