সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কায় বোরো ধান ঘরে তোলার ধুম

আপডেট : ১১ মে ২০২২, ০০:৪৮

দিনাজপুরের বিস্তীর্ণ বোরো খেতে কোথাও কোথাও সবুজ রং থাকলেও বেশির ভাগ এলাকায় ধারণ করেছে সোনালি রঙে। আর ঘূর্ণিঝড় আসানির শঙ্কায় উঠতি এসব বোরো ধান কেটে ঘরে তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন কৃষকরা। এজন্য দেখা দিয়েছে শ্রমিকসংকট।

দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কৃষকরা জমির বোরো ধান কাটা মাড়াইয়ে ব্যস্ত। কৃষকরা বলছেন, ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ আঘাত হানতে পারে এমন শঙ্কায় তারা উঠতি বোরো ধান কাটতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। বিরল উপজেলার বিজোরা গ্রামের কৃষক মোশাররফ হোসেন জানান, অনেক খরচ করে বোরো আবাদ করেছেন। এরই মধ্যে কিছু কিছু এলাকায় শিলাবৃষ্টি হলেও তাদের এলাকায় হয়নি। ইতিমধ্যেই জমির ধান পাকতে শুরু করেছে। তিনি বলেন, টেলিভিশনের খবরে তিনি দেখেছেন, ‘আসানি’ নামে একটি ঘূর্ণিঝড় আসছে। এই ঝড় এলে অনেক খরচ ও কষ্ট করে আবাদ করা জমির বোরো ধান নষ্ট হয়ে যাবে। তাই তড়িঘড়ি করে ধান কাটতে শুরু করেছেন। তবে তিনি বলেন, অনেকেই এক সঙ্গে ধান কাটতে শুরু করায় শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। বাড়তি পারিশ্রমিক দিয়ে শ্রমিক নিতে হচ্ছে। বিরলের পুরিয়া গ্রামের কৃষক মতিউর রহমান জানান, তার বোরো খেতে পুরো রং আসেনি। কিন্তু ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কায় তিনি ধান কাটতে শুরু করেছেন। তিনি বলেন, রং পুরোপুরি না এলেও ধান পরিপক্ব হয়েছে। তাই ক্ষতি হবে না। কিন্তু ঝড়ের কবলে পড়লে পুরো আবাদই নষ্ট হয়ে যাবে। এজন্য হারভেস্টার মেশিন ব্যবহার করছেন তিনি।

দিনাজপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মঞ্জুরুল হক জানান, দিনাজপুরে এবার ১ লাখ ৭১ হাজার ৪০০ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদ করা হচ্ছে। এর মধ্যে উফশী ২৫ হাজার ১০৬ হেক্টর এবং হাইব্রিড জাতের ধান আবাদ করা হয়েছে ১ লাখ ৪৬ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে। তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় আসানির শঙ্কায় কৃষকদের দ্রুত পাকা ধান কেটে নেওয়ার অনুরোধ করেন। সেই সঙ্গে প্রতিটি উপজেলা ও ইউনিয়ন কর্মকর্তাদের এ বিষয়ে নির্দেশ দেন যে, কৃষকরা যাতে পাকা ধান দ্রুত কেটে ফেলে সে ব্যাপারে সহযোগিতা করা।

বিরামপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ নিক্সন চন্দ্র পাল জানান, উপজেলার পৌর এলাকা ও সাতটি ইউনিয়নে এবার ১৫ হাজার ১০০ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হলেও আবাদ হয়েছে ১৫ হাজার ২০০ হেক্টর জমিতে। উপজেলার বোরো খেতে কোনো রোগ বালাই নেই এবং অনুকূল আবহাওয়া থাকলে এবার বিরামপুর উপজেলায় বোরো ধানের বাম্পার ফসল ঘরে উঠবে।

ইত্তেফাক/ ইউবি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিশেষ সংবাদ

ফুটপাত হকারদের দখলে, বাধ্য হয়ে মূল সড়কে পথচারীরা!

বিশেষ সংবাদ

ধান সিদ্ধতে তুষের পরিবর্তে রাবার-প্লাস্টিক কারখানার ঝুট!

বিশেষ সংবাদ

নতুন দামে চা পাতা কিনছেন না মালিকরা, হতাশায় কৃষক

কাহারোলে বোরো ধান কাটা-মাড়াই চলছে

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিশেষ সংবাদ

বোতলের মূল্য মুছে বেশি দামে সয়াবিন তেল বিক্রি!

বিশেষ সংবাদ

ফুলবাড়ীতে স্বস্তিতে নেই ক্রেতারা

বিশেষ সংবাদ

ফুলবাড়ীতে আম-লিচুর ঝুড়ি তৈরিতে ব্যস্ত মাহালীরা

আতঙ্কের নাম বিরামপুর হাসপাতালের বড় গাছ