শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পাকিস্তানে বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধের হুমকি চীনের

আপডেট : ১১ মে ২০২২, ২০:২৮

পাকিস্তানের কাছে ৩০০ বিলিয়নেরও বেশি বিল পাওনা চীনা বিদ্যুৎ উৎপাদনকারীদের। বিল পরিশোধ না করলে এই মাসের মধ্যেই বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলি বন্ধ করে দেওয়ার হুশিয়ারি দিয়েছে কয়েকটি চীনা বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান। এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এএনআই।

সোমবার (৯ মে) পাকিস্তানের পরিকল্পনামন্ত্রী আহসান ইকবালের সভাপতিত্বে ফ্ল্যাগশিপ মাল্টি-বিলিয়ন ডলারের চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোরের (সিপিইসি) অধীনে ৩০ টিরও বেশি চীনা কোম্পানির সঙ্গে একটি বৈঠক করেন। বৈঠকে চীনের পক্ষ থেকে বলা হয় পাওনা বিল না করলে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব না তাদের পক্ষ থেকে।

আবার পাকিস্তান সংবাদ মাধ্যম ডন এক প্রতিবেদনে জানায়, চীনা বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী (আইপিপি) এর প্রায় ২৫ জন প্রতিনিধি একের পর এক কথা বলেছেন এবং তাদের বকেয়া জমা দেওয়ার বিষয়ে অভিযোগ করেছেন এবং সতর্ক করে বলেন, অগ্রিম অর্থ প্রদান না করলে তারা কয়েক দিনের মধ্যে বন্ধ হয়ে যাবে।

এদিকে চীনা বিদ্যুৎ উৎপাদনকারীরা বলছেন, গ্রীষ্মের সর্বোচ্চ চাহিদা মেটাতে উৎপাদন বাড়াতে তাদের চাপ দিচ্ছে পাকিস্তান, কিন্তু তারল্য সমস্যার কারণে এটি আমাদের পক্ষে সম্ভব না।

চীনের জিনজিয়াং প্রদেশ থেকে বেলুচিস্তানের গোয়াদর পর্যন্ত চলমান এক সময়ের বহুল পরিচিত চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর (সিপিইসি) ক্রমশ অকার্যকর হয়ে পড়ছে। এর ফলে চীন ও পাকিস্তানের মধ্যে হতাশা বাড়ছে।

সিপিইসি ঋণে উচ্চ-সুদের হার, ক্রমবর্ধমান প্রকল্প ব্যয়, দুর্বল প্রকল্প এবং সিপিইসি অবকাঠামোর ওপর আক্রমণ প্রধান সমস্যা। এতে প্রকল্পের স্বপ্ন ফিকে হতে বসেছে।

ইত্তেফাক/এএইচপি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ইমরানের ‘আজাদি মার্চ’ জনসমুদ্র

চীনে বন্দিশিবির থেকে মুক্তির পর বাবার মৃত্যু, দাফনের সময় প্রাণ গেলো ছেলেরও 

অশান্ত অঞ্চলে পাকিস্তান সহিংসতা দমনে ব্যর্থ 

দ. কোরিয়ায় নতুন করে প্রায় ৯ হাজার করোনায় আক্রান্ত

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ইমরানের আজাদি মার্চ, ইসলামাবাদে সেনা মোতায়েন

তুরস্ককে সামলানো ন্যাটোর জন্য এখন কঠিন

খাদ্য সংকট এড়াতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া জরুরি: মস্কো

সেনেগালে হাসপাতালে আগুন, ১১ নবজাতকের প্রাণহানি