শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

তাজমহলের জমি জয়পুর রাজপরিবারের: বিজেপি এমপি

আপডেট : ১২ মে ২০২২, ১৩:০২

বিজেপি সাংসদের দাবি, তার কাছে প্রমাণ আছে যে, তাজমহলের জমি জয়পুরের রাজপরিবারের। অন্যদিকে তাজমহলের ২২টি ঘর খোলার দাবিতে এলাহাবাদ হাইকোর্টে বিজেপি নেতার আবেদন।

আবার বিতর্কের কেন্দ্রে তাজমহল। রাজস্থানের রাজসামন্দ থেকে নির্বাচিত বিজেপি সাংসদ ও জয়পুর রাজপরিবারের সদস্য দিয়া কুমারী দাবি করেছেন, সম্রাট শাহজাহান জয়পুর রাজপরিবারের জমি দখল করে তাজমহল তৈরি করেছিলেন।

দিয়ার বক্তব্য, সেই সময় মুঘল-রাজ ছিল। আজ সরকার যদি কারো জমি অধিগ্রহণ করে, তাহলে তাকে ক্ষতিপূরণ দেয়। কিন্তু আমি শুনেছি, সেসময় আমাদের জমি নেয়ার পরেও কোনো ক্ষতিপূরণ দেয়া হয়নি। তখন তো এমন কোনো আইন ছিল না যে, আমরা আবেদন জানাতে পারি। তাজের জমি নিঃসন্দেহে জয়পুরের রাজপরিবারের জমি।

তিনি বলেছেন, ঐতিহাসিকভাবে তাজমহল জয়পুর রাজপরিবারের জমিতে হয়েছে। তার কাছে এর প্রমাণ আছে। তিনি বলেছেন, কেউ যদি আদালতে মামলা করেন, তখন যদি কোনো তথ্যপ্রমাণ পেশ করার দরকার হয়, তিনি তা করবেন।

দিয়া কুমারীকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তাজমহলের আগে সেখানে কি কোনো মন্দির ছিল? তার জবাব, আমি নথিপত্র অতটা খুঁটিয়ে পড়িনি। তবে এটা নিশ্চিতভাবে বলতে পারি, ওই জমিটা রাজপরিবারের।

উত্তরপ্রদেশের এলাহাবাদ হাইকোর্টে মামলা করেছেন অযোধ্যায় বিজেপি-র মিডিয়া প্রধান রজনীশ সিং। তার দাবি, তাজমহলের ইতিহাস নিয়ে আদালত একটা ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং টিম গঠন করুক। সেই সঙ্গে তাজমহলের ২২টি বন্ধ কক্ষও খুলে দেখা হোক, সেখানে কী আছে।

সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে রজনীশ জানিয়েছেন, আবেদনে আমি বলেছি, তাজমহলের ২২টি ঘরের দরজা খোলা হোক। তাহলে সত্য প্রকাশ পাবে। দক্ষিণপন্থি অনেক সংগঠন দাবি করে, তাজমহলের আগে সেখানে ভগবান শিবের মন্দির ছিল।

বৃহস্পতিবার এলাহাবাদ হাইকোর্টে এই মামলার শুনানি হতে পারে।

ইত্তেফাক/টিআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

গাড়ি দুর্ঘটনায় লাদাখে ৭ ভারতীয় সেনা নিহত 

মমতার লক্ষ্য এবার বিশ্ববিদ্যালয়

হিন্দি উপন্যাসের জন্য প্রথম বুকার পুরস্কার

স্টেডিয়াম খালি করে কুকুর নিয়ে হাঁটেন আমলা

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

কাশ্মির: টিকটক স্টার হত্যায় অভিযুক্তদের বন্দুকযুদ্ধে মৃত্যু

প্রতিবেশী দেশগুলোতে গম রপ্তানি অব্যাহত রাখবে ভারত

তাজমহল কি হিন্দুমন্দির, হিন্দুত্ববাদীদের দাবি নিয়ে বিতর্ক

জ্ঞানবাপীতে মুসলিমদের প্রবেশ বন্ধের দাবিতে মামলা