শনিবার, ২১ মে ২০২২, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস

আপডেট : ১৫ মে ২০২২, ০৮:০০

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অলরাউন্ডার ক্রিকেটার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৬ বছর। সাইমন্ডসের প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে ক্রিকেট দুনিয়ায়।

অস্ট্রেরিয়ার টাউন্সভিলে রবিবার (১৫ মে) দুর্ঘটনাটি ঘটে। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, স্থানীয় সময় রাত ১১টা নাগাদ গাড়িটি অ্যালিস রিভার ব্রিজ থেকে বাম দিকে যাওয়ার সময় উল্টে যায়। প্রাথমিক তথ্যানুযায়ী, রাত ১১টার নাগাদ হার্ভে রেঞ্জ রোডের উপর দিয়ে গাড়িটি যাচ্ছিল। অ্যালিস রিভার ব্রিজের কাছে বাম দিক নেওয়ার সময় গাড়িটি উল্টে যায়। সঙ্গে সঙ্গে ৪৬ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয় ক্রিকেটার এবং তাঁর একমাত্র সহযাত্রীকে বাঁচানোর চেষ্টা করা হয়, কিন্তু সেখানেই মারা যান সাইমন্ডস। অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন ক্রিকেটারের পরিবারের পক্ষ থেকেও তাঁর মৃত্যুতে শোক বার্তা জানানো হয়েছে।

৪ মার্চ প্রয়াত হন শেন ওয়ার্ন। মাত্র এক মাস ১০ দিনের মাথায় প্রাণ হারালেন তাঁর সতীর্থ। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২৬টি টেস্ট, ১৯৮টি একদিনের ম্যাচ এবং ১৪টি টি-টোয়েন্টি খেলেছিলেন সাইমন্ডস। দু'বার বিশ্বকাপও জিতেছিলেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাইমন্ডসের অভিষেক ঘটে ১৯৯৮ সালে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এক দিনের ম্যাচে প্রথম অভিষেক ঘটে এই অলরাউন্ডারের।

ঝাঁকড়া চুলের সাইমন্ডস পরিচিত ছিলেন রয় নামে। এক দিনের ক্রিকেটে ৫০৮৮ রান করেছিলেন তিনি। নিয়েছিলেন ১৩৩টি উইকেট। টেস্টে দু'টি শতরান-সহ ১৪৬২ রান করেছিলেন সাইমন্ডস। নিয়েছিলেন ২৪টি উইকেট। বিধ্বংসী ব্যাটার, কার্যকরী বোলার এবং দুর্দান্ত ফিল্ডার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজেকে প্রমাণ করেছিলেন তিনি।

সাইমন্ডস আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন ২০১২ সালে। এর পর ধারাভাষ্যকার হিসেবে মাইক হাতে তুলে নেন তিনি।

ইত্তেফাক/এসজেড

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচে সাইমন্ডসকে স্মরণ

২০২৭ সালে টাইগারদের অস্ট্রেলিয়া সফর 

অস্ট্রেলিয়ার নতুন কোচ ম্যাকডোনাল্ড

টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানের পরাজয়

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে নারী বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া

পাকিস্তানের ২০ বছর অপেক্ষার সমাপ্তি 

ফুল, শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় কিংবদন্তির বিদায়

ম্যাক্সওয়েলের বিয়েতে জুতা চুরি, সম্পূর্ণ ঘটনাই কাল্পনিক!