সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পরিবেশ দূষণে ২০১৯ সালে ৬ জনের মধ্যে ১ জনের মৃত্যু

আপডেট : ১৮ মে ২০২২, ১৬:২২

পরিবেশ দূষণের কারণে ২০১৯ সালে বিশ্বে প্রায় ৯০ লাখ লোকের অকাল মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১৮ মে) প্রকাশিত এক বৈশ্বিক রিপোর্টে এ কথা বলা হয়েছে। বাইরের বাতাস থেকে শ্বাস-প্রশ্বাসের কারণে মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করেছেন এবং তারা এই মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য বাতাসে ‘ভয়াবহ’ বিষাক্ত সীসার উপস্থিতির কথা উল্লেখ করেন।

মানব সৃষ্ট বর্জ্য বাতাস, পানি, মাটি দূষিত করে কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে এতে মানুষ মারা যায় না। পরিবর্তে এটি হৃদরোগ, ক্যান্সার, শ্বাসকষ্টের সমস্যা সৃষ্টি করে, ডায়রিয়া অন্যান্য গুরুতর অসুস্থতা সৃষ্টি করে।

দূষণ এবং স্বাস্থ্য বিষয়ক ল্যানসেট কমিশন বলেছে, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্যের ওপর দূষণের প্রভাব যুদ্ধ, সন্ত্রাস, ম্যালেরিয়া, এইচআইভি, যক্ষ্মা, ড্রাগ এবং অ্যালকাহোলের চেয়ে বেশী।’

এতে বলা হয়, দূষণ ‘মানব স্বাস্থ্য এবং এই গ্রহের অস্তিত্বের জন্য হুমকি এবং এটি আধুনিক সমাজের স্থায়িত্বকে বিপন্ন করে তোলে।

সাধারণভাবে পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ২০১৯ সালে বায়ু দূষণে বিশ্বব্যাপী মোট ৬৭ লাখ লোকের মৃত্যু হয়েছে। এর সঙ্গে জড়িত হয়েছে জলবায়ু পরিবর্তন জনিত মৃত্যু, উভয় ক্ষেত্রেই সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে জীবাশ্ম জ্বালানি এবং জৈব জ্বালানি পোড়ানোর কারণে।

গ্লোবাল এলায়েন্স অন হেলথ অ্যান্ড পলিউশন এর রিপোর্টের লিড লেখক রিচার্ড ফুলার বলেছেন, ‘যদি আমরা পরিষ্কার ও সবুজায়নের এগোতে না পারি তাহলে বড় ভুল করবো’ তা না হলে রাসায়নিক দূষণ বিশ্বব্যাপী জীববৈচিত্র্যের জন্য হুমকি হয়ে উঠবে।’

ইত্তেফাক/এএইচপি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ভয়াবহ বন্যা উত্তর-পূর্ব ভারতে, আসামে মৃত ৭১

খাদের কিনার থেকে শ্রীলঙ্কাকে টেনে তুলতে ‘উদ্ধার প্রকল্প'

ভারতে ১৬ বছরেই বিয়ে করতে পারবে মুসলিম মেয়েরা

মধ্য এশিয়ায় শক্তি বাড়াচ্ছে চীন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ায় নতুন রোগের প্রাদুর্ভাব

আসাম ও মেঘালয়ে বন্যার অবনতি, মৃত্যু বেড়ে ১৬

অবশেষে কিয়েভে গেলেন শলৎস

রাশিয়ার সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তার প্রতি চীনা সমর্থন আছে: শি জিনপিং