মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বরিশালে যুবক হত্যা মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন

আপডেট : ১৮ মে ২০২২, ১৯:০৯

ঝালকাঠির রাজাপুরে মেহেদী হাসান মনিব শুভ নামে এক যুবককে হত্যার মামলায় চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। পাশাপাশি ৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। 

বুধবার (১৮ মে) বিকেল ৩টায় বরিশাল বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মাহমুদুর রহমান এই রায় আসামিদের উপস্থিতিতে ঘোষণা করেন। 

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো, জসীম খান, হেলাল ফকির, ফয়সাল ফকির ও বেলাল ফকির। দণ্ডপ্রাপ্তরা রাজাপুরের বড়ইয়া এলাকার বাসিন্দা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের স্পেশাল পিপি চৌধুরী। 

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ২৬ মার্চ রাতে বন্ধুর সাথে পিকনিকের কথা বলে পুরের বড়াইয়ার এলাকার নিজ বাসা থেকে হয় যুবক মেহদী হাসান মনিব শুভ। এরপর রাতে শুভর বাড়ির পেছন থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় তাকে। রাজাপুর হাসপাতালে ভর্তির পর শুভ তার বাবা আব্দুল্লাহ আল মাহবুবকে জানায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরের ধারালো অস্ত্র দিয়ে আসামিরা তাকে কুপিয়ে জখম করেছে। রাজাপুর থেকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনার পথেই মৃত্যু হয় শুভর। এই ঘটনায় শুভর বাবা মাহবুব বাদী দ্রুত বিচার আইন রাজাপুর থানায় ২৮ তারিখ ১৫ জনের নাম উল্লেখ ও ৫/৬ জনকে অজ্ঞাত করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ২০২০ সালের ২০ জুলাই রাজাপুর থানার ইন্সপেক্টর মো. মাঈনুউদ্দিন ও আবুল কালাম আজাদ ৯ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট প্রদান করে। আদালতে ২৫ জন সাক্ষীর মধ্যে ২২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন। পাশাপাশি ৫ আসামীকে মামলা থেকে খালাস প্রদান করেন।

ইত্তেফাক/এমএএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

লক্ষ্মীপুরে হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন 

কুমিল্লা সিটি নির্বাচন: ২২ জুলাই পর্যন্ত মামলা দেওয়া যাবে ট্রাইব্যুনালে

বাকেরগঞ্জ তক্ষক চোরাকারবারির ৩ সদস্য গ্রেফতার

বরিশাল ক্যাডেট কলেজে নবনির্মিত ক্যাডেট হাউস উদ্বোধন করলেন সেনাবাহিনী প্রধান

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: সাজাপ্রাপ্ত আসামি পিন্টু কারাগারে

পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়ে মাত্র ৩ ঘণ্টায় বরিশালে

রংপুরে গৃহবধূকে গণধর্ষণ: তিন আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড 

রফাদফায় জেলেদের ছেড়ে দেয় নৌ-পুলিশ!