শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

রৌমারীতে মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা

আপডেট : ২১ মে ২০২২, ২০:১০

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে  মা-ছেলেকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার উপজেলার সদর ইউপির নতুন বন্দর গ্রামের একটি ধানক্ষেত থেকে শিশুর লাশ ও পাশের একটি পুকুরপাড় থেকে তার মাকে গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। পরে হাসপাতালে তার মায়ের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- মা হাফসা আক্তার  (২৬) ও তার ছয় মাসের ছেলে হাবিব। হাফসার বাড়ি রৌমারী সদর ইউনিয়নের নতুন বন্দর এলাকায়। তিনি ওই গ্রামের আব্দুর রশীদের মেয়ে। তার স্বামীর বাড়ি উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নের উকড়াকান্দা গ্রামে।

নতুন বন্দর গ্রামের আব্দুর সবুর বলেন, ভোরে চিৎকার শুনে দৌড়ে গিয়ে দেখি- হাফসাকে গলাকাটা অবস্থায় ও তার পাশে গলাকাটা অবস্থায় তার ছেলের পড়ে আছে। পরে আশপাশের লোকজন আগিয়ে এসে রৌমারী থানায় খবর দেন। পুলিশ এসে  হাফসাকে রৌমারী হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে  তার মৃত্যু হয়।

হাবিবের মামা হাশিনুর জানান, দেড় বছর আগে উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নের উকড়াকান্দা গ্রামের বাহাদুরের ছেলে সাহেব আলীর সঙ্গে তার বোনের বিয়ে হয়। বোনের ঘরে ৬ মাস আগে হাবিব নামে এক ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। জন্মের পর থেকে শিশুটির খিচুনি রোগ ছিল। গত বৃহস্পতিবার তার বোন কুড়িগ্রাম হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যায়। এরপর থেকে তার বোনের সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি।

রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানো হবে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

ইত্তেফাক/ইউবি