রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নিয়ন্ত্রণহীন মহানগর-থানা-ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতারা

আপডেট : ২২ মে ২০২২, ০৮:২০

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বেপরোয়া চাঁদাবাজি চলছে। ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের মহানগর-থানা-ওয়ার্ড পর্যায়ের একশ্রেণির নেতা অনেকটা নিয়ন্ত্রণহীন। তারা নিয়মিত চাঁদা তুলছেন। অনেক ক্ষেত্রে চাঁদাবাজরা ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ নেতাদের নামও ব্যবহার করছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের নামেও একশ্রেণির নেতা চাঁদাবাজি করে আসছিলেন। যে কারণে চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দিতে তিনি বাধ্য হয়েছেন। আওয়ামী লীগের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠনের একশ্রেণির নেতাদের এমন চাঁদাবাজিসহ নানা অপকর্মের কারণে সরকারের অর্জন ম্লান হয়ে যাচ্ছে। বিভিন্ন ধরনের উন্নয়নমূলক কাজ, সরকারি নিয়োগসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডেও তাদের দাপট বিস্তৃৃত।

শুক্রবার (২০ মে) দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘আমার নামে যে বা যারা চাঁদাবাজি করবে তাদের বিরুদ্ধে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কঠোর ব্যবস্থা নেবে।’ তার নাম ব্যবহার করে চাঁদাবাজির অভিযোগে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতিকে আটক করেছে র‌্যাব। তার নাম দেলোয়ার হোসেন সাঈদী। বৃহস্পতিবার ভোরে সবুজবাগ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। গ্রেফতারের পর তাকে নিয়ে র‌্যাবের আভিযানিক দল রাস্তায় বের হলে ছাত্রলীগের বাধার সম্মুখীন হয়। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের আহাম্মেদের নেতৃত্বে ১৫০-২০০ জন সাঈদীকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। র‌্যাবের ওপর সশস্ত্র হামলাও করা হয়। সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় জোবায়েরকেও র‌্যাব গ্রেফতার করে। তাদের বিরুদ্ধে সবুজবাগ থানায় তিনটি মামলা হয়েছে।

এদিকে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্মের লাগাম টানতে যেখানে অভিযোগ আসবে, সেখানে কমিটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ছাত্রলীগ। নোয়াখালীতে ছাত্রলীগের নবগঠিত সাত কমিটিসহ মেয়াদোত্তীর্ণ জেলা কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেছে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সংসদ। শনিবার রাতে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

জানা গেছে, ছাত্রলীগের মহানগর ও থানা, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শাখা কমিটির একশ্রেণির নেতারা নীরবে চাঁদাবাজি করে আসছেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। অবশ্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের একশ্রেণির নেতাও চাঁদা ও মাদকের টাকার ভাগ পান বলে অনেকে দাবি করেছেন। গত মার্চে রাজধানীর আনন্দ বাজারে চাঁদা দাবির অভিযোগ ওঠে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অমর একুশে হল শাখা ছাত্রলীগের নতুন কমিটির নেতাদের বিরুদ্ধে।

এককালীন ১০ লাখ ও প্রতি মাসে ১ লাখ টাকা করে চাঁদা দাবি করা হয়। চাঁদা না দেওয়ায় বাজারের সাতটি দোকান বন্ধ করে দেন তারা। ১০ দিন ধরে দোকানগুলো বন্ধ ছিল। এর আগে গত ২ মার্চ ‘উপঢৌকন’ চেয়ে পলাশী বাজারে হানা দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হল শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

সিলেট ছাত্রলীগের ঘোষিত কমিটি টাকায় বিক্রি করেছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সেক্রেটারি লেখক ভট্টাচার্য— এমন অভিযোগে গত বছরের অক্টোবরে রাজপথে উত্তাল আন্দোলন চালান পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টারদা সূর্যসেন হলের সেলুনের মালিকের কাছ থেকে চাঁদা চাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ছাত্রলীগের কোনো পদে না থাকলেও হল শাখা ছাত্রলীগের শীর্ষ পদপ্রত্যাশী পরিচয় দেওয়া এক ছাত্রের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ ওঠে।

সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের দুই সদস্যের কমিটি অনুমোদনের পর থেকেই নানা কারণে ঐতিহ্যবাহী সংগঠনকে কলঙ্কিত করা হচ্ছে। অনেকে দাবি করেছেন, জেলা ছাত্রলীগের শীর্ষ এক নেতা খুব জোরেই দাবি নিয়ে বলেন, ‘আমি ৩০ লাখ টাকা খরচ করে জেলা ছাত্রলীগের নেতা হয়েছি, এখন ব্যবসা-চাঁদাবাজি করে এবং কমিটি বিক্রি করে টাকা উঠাচ্ছি, কেউ আমার কিছুই করতে পারবে না।’

যশোরের মণিরামপুরে যুবলীগ-ছাত্রলীগের ১০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে অটো রাইস মিল মালিককে মারধর করে প্রায় ৪ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। ২০২০ সালে রাজধানীর কদমতলী এলাকায় ট্রাক ও বাস থেকে চাঁদা তোলার সময় হাতেনাতে ফরিদ আলী নামে এক যুবলীগ নেতাকে আটক করা হয়।

এলাকাবাসী জানান, ফরিদ ২০-২৫ জন যুবলীগের সদস্য নিয়ে ভয় দেখিয়ে প্রায় প্রতিদিন ট্রাক, বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা থেকে চাঁদা তুলে আসছিলেন। ২০২১ সালে চাঁদাবাজি ও অপহরণের অভিযোগে ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা নাদিম হায়দারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এবারের ঈদে রাজধানীর বিভিন্ন ফুটপাতে হকারদের কাছ থেকে দ্বিগুণ, এমনকি কোথাও কোথাও তিনগুণ বেশি হারে চাঁদা আদায় করছে ‘লাইনম্যান’ নামধারী পাঁচ শতাধিক চাঁদাবাজ। মূলত কতিপয় পুলিশ সদস্য ও ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় কিছু নেতার আশীর্বাদে চলে এ চাঁদাবাজি।

যুবলীগ ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ ও এর আওতাধীন থানা ও ওয়ার্ড কমিটির এক শ্রেণির নেতারা একেবারেই নিয়ন্ত্রণহীন। তারা চাঁদাবাজিতে জড়িত। কেন্দ তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। দীর্ঘদিন মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি দিয়ে চলছে এসব শাখা কমিটি।

চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজিতে পিছিয়ে নেই স্বেচ্ছাসেবক লীগ। মহানগর, থানা ও ওয়ার্ড শাখার নেতাদের এক শ্রেণির নেতারা চাঁদাবাজিতে জড়িত। স্বেচ্ছাসেবক লীগের বর্তমান কেন্দ্রীয় ও সাবেক মহানগরের এক নেতা চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজির মাধ্যমে শত শত কোটি টাকার মালিক হয়েছেন— এমন কথা অনেকের মুখে মুখে।

আওয়ামী লীগের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোর দায়িত্বশীল বহু সূত্র জানায়, অনুপ্রবেশকারীদের অনেকেই পদবি আর টাকার প্রভাব খাটিয়ে নির্বিঘ্নে স্থানীয় পর্যায়ে সরকারি নিয়োগ-বাণিজ্য, বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ থেকে চাঁদা আদায়, মাদকের ব্যবসা, টেন্ডারবাজি ও চাঁদাবাজিসহ নানা অপকর্ম চালাচ্ছেন। স্থানীয় থানা ও প্রশাসন তাদের অপকর্মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সাহস পায় না। এসব বিতর্কিত নেতাদের দাপটে সারা দেশে মূলস্রোতের আওয়ামী লীগাররাই কোণঠাঁসা। এমন অবস্থার মধ্যে আগামী ডিসেম্বরে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের আগে মেয়াদোত্তীর্ণ সহযোগী সব সংগঠনের সম্মেলনের মাধ্যমে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

গত ১১ মে ছাত্রলীগ, যুব মহিলা লীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন দ্রুত করার নির্দেশ দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তবে সেই নির্দেশ অমান্য করে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সম্মেলন পেছানোর অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে।

শনিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সম্মেলনপ্রত্যাশীদের প্রশ্নের মুখোমুখি হন জয়-লেখক। তাদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর সম্মেলনের তারিখ পেছানোর চেষ্টার অভিযোগ তোলেন সংগঠনের একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের শীর্ষ এ দুই নেতা সাংবাদিকদের বলেন, সম্মেলনের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাত জন নেতা জানান, আগামী ডিসেম্বরে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন হবে। এর আগে সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোর মেয়াদোত্তীর্ণ সব শাখার সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সম্মেলনের মাধ্যমে এগুলোকে ঢেলে সাজানো হবে।

ইত্তেফাক/এসজেড

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

শেখ পরশের জন্মদিনে দরিদ্র মানুষের পাশে যুবলীগ

বিএনপি উদভ্রান্তের মতো উল্টাপাল্টা বক্তব্য দিচ্ছে: তথ্যমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য মুকুল বোস আর নেই

নির্মল রঞ্জন গুহ’র শেষকৃত্য অনুষ্ঠান শুক্রবার

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানালেন সেতুমন্ত্রী

ড. ইউনূস-হিলারি-চেরি ব্লেয়ারের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার দাবি নিক্সন চৌধুরীর

আগামী নির্বাচনে ইভিএম বাড়ানোর পক্ষে আওয়ামী লীগ: কাদের

২৭ জুলাইয়ের স্থানীয় সরকার নির্বাচনে নৌকার ২৮ প্রার্থী চূড়ান্ত