শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১০ আষাঢ় ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ফুলবাড়ীতে বোরো ঘরে তোলার ব্যস্ততায় পানিতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু  

আপডেট : ২৪ মে ২০২২, ১৩:৩৭

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে গেলো এক সপ্তাহের ব্যবধানে বারোমাসিয়া নদী ও ডোবার পানিতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সংশ্লিষ্ট পরিবারগুলো জানিয়েছেন বৈরী আবহাওয়ার কারণে বোরো ঘরে তোলার ব্যস্ততায় অজান্তে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফজলুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

জানা গেছে, রবিবার (২২ মে) বিকাল ৪ টায় জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার সদর ইউনিয়নের প্রাণকৃষ্ণ গ্রামে মা রোকেয়া বেগম ধান শুকাতে ব্যস্ত থাকায় আব্দুল্ল্যাহ (০৩) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সে ঐ এলাকার আশরাফুল ইসলামের ছেলে। সোমবার (১৬ মে) একই উপজেলার শিমুলবাড়ী ইউনিয়নে সোনামনি (০১) নামের এক বছরের শিশুর রেখে মা লাকী বেগম বোরো ধান শুকাতে ব্যস্ত থাকায় বারোমাসিয়া নদীতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে। সে ঐ এলাকার রফিকুল ইসলামের মেয়ে। একই দিনে উপজেলার ভাঙ্গামোড় ইউনিয়নের ভাঙ্গামোড় গ্রামে ডোবার পানিতে গোসল করতে গিয়ে রাকিবুল হাসান (০৬) নামের  এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সে ঐ এলাকার আমিনুল ইসলামে ছেলে।    

নিহত সোনামনির বাবা কৃষি শ্রমিক রফিকুল ইসলাম জানান, আমি বোরো ধান কাটতে সকালে বাড়ী থেকে বের হয়েছি। আমার স্ত্রী লাকী বেগম বারোমাসিয়া নদীর তীরবর্তী এলাকায় মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ীর ধান শুকাতে ব্যস্ত থাকেন। এক সময় স্ত্রীর অজান্তে আমার মেয়ে বারোমাসিয়া নদীতে ডুবে যায়। পরে আমার স্ত্রী মেয়েকে না পেয়ে চিৎকার করলে স্থানীয়রা এসে নদী থেকে আমার মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করে। মেয়ের শোকে আমার স্ত্রী এখন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।   

ফুলবাড়ী উপজেলা শিল্প কলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান ১৬ মে সোনামনি (০১) নামের শিশুটির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গেলো এক সপ্তাহের ব্যবধানে আমরা তিন নিষ্পাপ শিশুকে অকালে হারালাম। এটা খুবই দুঃখজনক ঘটনা। তাই সাঁতার না জানা শিশুদের পানির নাগাল থেকে দুরে রাখতে প্রতিটি মায়ের প্রতি আহ্বান জানান। সেই সাথে প্রতিটি পরিবারে বাবা-মাসহ অভিভাবকরা একটু সচেতন হলে আমরা কোন নিষ্পাপ শিশুকে আর অকালে হারাতে হবে না বলেও তিনি জানিয়েছেন।  

এ প্রসঙ্গে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফজলুর রহমান বলেন, বর্ষাকাল এসেছে চারিদিকে পানি। তাই সকল অভিভাবককে সচেতন হতে হবে। এছাড়াও আমরা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিটি ইউনিয়নের পাড়া মহল্লায় শিশুদের জীবন রক্ষার্থে গুরুত্বের সঙ্গে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাবো।   

ইত্তেফাক/এআই

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

কুড়িগ্রামে বন্ধ হয়ে গেছে ৩২৫ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

চিলমারীতে ৮০ হাজার মানুষ পানিবন্দী

রাজিবপুরে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি

নাগেশ্বরীতে বন্যায় বন্ধ ১১১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, খোলা হয়েছে আশ্রয়কেন্দ্র

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

চিলমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বাড়ছেই

চিলমারীতে নতুন এলাকা প্লাবিত, ৬০ হাজার মানুষ পানিবন্দি

কুড়িগ্রামে বাড়ছে পানি, দেড় লাখ পানিবন্দি

কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি