বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নিউইয়র্কে বেড়েছে গুলি-খুন, ‘বাড়ছে আতঙ্ক’ 

আপডেট : ০২ জুন ২০২২, ১৩:৪০

গত বছরের একই সময়ের তুলনায় চলতি বছরের পাঁচ মাসে নিউইয়র্ক সিটিতে গোলাগুলি বেড়েছে আশঙ্কাজনক হারে। এ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিন’শ গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। সম্প্রতি নিউইয়র্কের বাফেলোতে সুপারমার্কেটে গুলি করে ১০ জন এবং টেক্সাসের এলিমেন্টারি স্কুলে ১৯ শিশুসহ ২১ জনকে গুলি করে হত্যার ঘটনা নগরবাসীকে চরম আতঙ্কিত করে তুলছে। প্রতিদিন নগরের কোথাও না কোথাও ভয়াবহ ও প্রকাশ্য অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে।

নিউইয়র্ক সিটির সর্বোচ্চ নিরাপত্তা যেখানে, সেই স্কুলগুলোতেও হামলার হুমকি আসছে। ফলে সন্তানের নিরাপত্তা নিয়েও উদ্বিগ্ন অভিভাবকেরা। মধ্যবিত্তের ভরসা নিউইয়র্কে সাবওয়ে বা পাতাল ট্রেন, সেখানে অবস্থা আরও বিপজ্জনক এখন।

নিউইয়র্ক সিটির অপরাধ পরিসংখ্যান পর্যালোচনা করে পুলিশ কমিশনার কিচেন্ট সিওয়েল বলছেন, নিউইয়র্কে সিটির সড়কে গুলি ও খুনের ঘটনা বেড়েছে। এসব ঘটনায় আমেরিকার সবচেয়ে জনবহুল শহরটি পিছিয়ে যেতে পারে।

এদিকে দায়িত্ব গ্রহণের পাঁচ মাস অতিবাহিত হলেও মেয়র এরিক অ্যাডামস বিভিন্ন সময় সাংবাদিকদের কাছে বলেছেন যে সিটির অপরাধ দমনে পুলিশ এখনো লক্ষ্যে পৌঁছতে পারেননি। হত্যাকাণ্ড হ্রাস পেলেও গুলিবর্ষণের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে পুলিশ ও অন্যান্য সংস্থাকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। অবশ্য, মেয়র অ্যাডামস আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেছেন, খুব শিগগির অবস্থার পরিবর্তন হবে।

নিউইয়র্ক সিটিতে হত্যাকাণ্ড তুলনামূলক হ্রাস পেয়েছে এবং এজন্য পুলিশকে কৃতিত্ব দিয়ে তিনি বলেন, শুধুমাত্র মার্চ মাসে চার হাজারের বেশি অপরাধী গ্রেফতার হয়েছে, যা গত বছরের একই সময়ের সংখ্যার দ্বিগুণেরও বেশি।

মেয়র ও পুলিশ কমিশনারের এ ধরনের আশাবাদ এমন এক সময়ে এসেছে যখন সিটিতে একের পর এক গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটছে। গত সপ্তাহে নিউইয়র্কের ব্রুকলিনে ১২ বছর বয়সী এক কিশোর নিহত হয়েছে সন্ত্রাসীদের ক্রসফায়ারে। ব্রঙ্কসে একটি বিপথগামী বুলেটের আঘাতে ৬১ বছর বয়সী একজন নারী নিহত হয়েছেন। এর আগে গত মাসে ব্রুকলিন ডে কেয়ারের বাইরে একটি ৩ বছর বয়সী শিশুর কাঁধে গুলি লাগে।

একের পর এক গুলিবর্ষণের ঘটনায় এক আতঙ্কের শহরে পরিণত হয়েছে নিউইয়র্ক সিটি। শুধু গোলাগুলি নয়, বিগত বছরগুলোর তুলনায় চুরি, ডাকাতি এবং দস্যুতার মতো অপরাধ বৃদ্ধি পেয়েছে।

প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা যা-ই বলুন না কেন, গবেষকরা বলছেন ভিন্ন কথা। তারা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলছেন, নিউইয়র্কের খারাপ পুরনো দিনগুলিতে ফিরে যাচ্ছে। জন জে কলেজ অব ক্রিমিনাল জাস্টিস-এর গবেষণা ও মূল্যায়ন কেন্দ্রের পরিচালক জেফরি বাটসের মতে, ‘বর্তমান অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড আমাকে নব্বই দশকের কথা মনে করিয়ে দেয়।’

নিউইয়র্ক সিটিতে অপরাধ বেড়ে যওয়ায় উদ্বিগ্ন প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। কারণ সন্ত্রাসীদের টার্গেট এশিয়ানরা। তাদের ওপর আক্রমণ বেড়েই চলেছে। বিশেষ করে এশিয়ানরা সাবওয়ে ট্রেনে চড়তে গিয়ে আক্রমণের শিকার হচ্ছেন। বর্তমানে নিউইয়র্কের সাবওয়ে সিস্টেম ভয়াবহ বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে। অনেকেই ট্রেনে চড়া ছেড়ে দিয়েছেন। অনেকে নিরুপায় হয়ে ট্রেনে চড়লেও চরম আতঙ্কের মধ্যে থাকেন।

চলতি বছরের পাঁচ মাসে নিউইয়র্ক সিটির সাবওয়েতে এ পর্যন্ত চারজন খুন হয়েছেন। সর্বশেষ গত ২২ মে ম্যানহাটনে কিউ ট্রেনের মধ্যে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন ব্যাংক কর্মকর্তা ড্যানিয়েল এনরিকজ। এ ঘটনায় পুলিশ এক কৃষ্ণাঙ্গ যুবককে গ্রেফতার করেছে।

গুলিবর্ষণ বেড়ে যাবার পাশাপাশি নগরীতে ডাকাতি, চুরি ও ছিনতাইয়ের ঘটনাও বেড়েছে আশঙ্কাজনক হারে। সাম্প্রতিক সময়ে নিউইয়র্কের বাংলাদেশি অধ্যুষিত জ্যাকসন হাইটসে বেশ কয়েকটি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। আর এসব ঘটনায় প্রাণহানির ঘটনাও ঘটছে।

গত ২৯ মে রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় নিউইয়র্কের ব্রুকলিনের ব্রুকভিল বুলেভার্ডের একটি অ্যাপার্টমেন্ট ভবনের সামনে সন্ত্রাসীরা ওয়ালিক ওয়াটফোর্ড নামে ৩১ বছরের এক যুবককে গুলি করে। পুলিশ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করে।

ওয়ালিক ওয়াটফোর্ডের খুনের ঘটনায় মোটেও বিস্মিত হননি ওই অ্যাপার্টমেন্টের বাসিন্দারা। তারা বলছেন, এ ধরনের ঘটনা ঘটেই চলেছে। এর আগেও এই অ্যাপার্টমেন্টের সামনে আরও ছয়জন খুন হয়েছেন।

নিউইয়র্কের ম্যানহাটন সবসময় নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা থাকে বলে মনে করা হয়। অথচ গত ২৬ মে বৃহস্পতিবার ম্যানহাটনের আপার ইস্ট সাইডের লেক্সিংটন অ্যাভিনিউ এবং ৬৩ স্ট্রিট সাবওয়ের কাছে প্রকাশ্য দিনের আলোয় এক ব্যক্তিকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে মুখোশ পরা এক সন্ত্রাসী। এ ঘটনায় সেখানকার পথচারীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সন্ত্রাসীকে ধরতে পুলিশ পরে ভিডিও প্রকাশ করে।

ইত্তেফাক/এমআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সুইডিশ নির্বাচনে লড়বেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মহিবুল

কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসে শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালিত

জাপানে বিনম্র শ্রদ্ধায় বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উদযাপিত  

প্রবাস কত সুখের!

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এর ৭৩তম জন্মবার্ষিকী পালিত

বাংলাদেশি ব্রাদার্স সিডনি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হাসিবুর, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস

বাংলাদেশ সমিতি জেনোভা আয়োজিত বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন

নিউইয়র্কে ৪ দিনব্যাপী বইমেলার উদ্বোধন