বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে ব্যাংকের প্রকৃত সুদের হার বৃদ্ধির আহ্বান আমীর ফয়সলের

আপডেট : ১৫ জুন ২০২২, ১২:১৯

মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে ব্যাংকের প্রকৃত সুদের হার ৩ শতাংশ বৃদ্ধির আহ্বান জানিয়েছেন জাকের পার্টির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ড. সায়েম আমীর ফয়সল। তিনি বলেন, ‘বাজেটে মূল্যস্ফীতির টার্গেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৫.৬ শতাংশ; যা আমার দৃষ্টিভঙ্গিতে অবাস্তব।’ মঙ্গলবার (১৩ জুন) দুপুরে জাকের পার্টির বনানীস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট পর্যালোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। 

ড. সায়েম আমীর ফয়সল মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখাকে এ অর্থবছরের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলে অভিহিত করেছেন। একইসঙ্গে বাজেটের সফল বাস্তবায়নে সুষম বণ্টন ও গুণগত ব্যয় নিশ্চিত করার লক্ষ্যে অর্থনৈতিক অঙ্গরাজ্য গঠনের প্রস্তাবও তিনি তুলে ধরেন।

দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে মজুতদারদের সিন্ডিকেটগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, ‘সঞ্চয়কারীরা কোথায় সঞ্চয় করবেন? বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে টাকার মূল্য প্রতি বছর কমে যাচ্ছে। ক্রয়ক্ষমতা কমে যাচ্ছে। এ অবস্থায় ভূমি বা স্বর্ণে সাধারণ বিনিয়োগকারীকে বিনিয়োগ করার সুযোগ দানের পরামর্শ দেন।’

সংবাদ সম্মেলনে ড. সায়েম বলেন, ‘প্রস্তাবিত বাজেট অনুযায়ী প্রতি জেলা গড়ে বরাদ্দ পায় প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা। প্রশাসন বিকেন্দ্রীকরণ না করলে, জনসাধারণকে মূল অর্থনৈতিক স্রোতধারায় অন্তর্ভুক্ত করা সম্ভব হবে না। এর সুফলও আসবে না। এজন্য জেলা পর্যায়ে সরকার প্রয়োজন।’

তিনি বলেন, ‘এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৫ সালে ডিসট্রিক্ট গভর্নর নিয়োগ করার প্রস্তাবনা দিয়েছিলেন, যাতে প্রবৃদ্ধির সুফল তৃণমূলে পৌঁছায়। তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের মাথা পিছু আয় ২ হাজার ৮০০ মার্কিন ডলার, অর্থাৎ প্রতি মাসে আয় ২২ হাজার ৪০০ টাকা। প্রশ্ন হচ্ছে-এ আয় কতজন মানুষ পাচ্ছে? গড় হার সবসময় সঠিক চিত্রকে ধারণ করে না।’

এ সময় জাকের পার্টির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব শামীম হায়দার, রাজনৈতিক উপদেষ্টা এজাজুর রসুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ইত্তেফাক/এএএম