শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভুয়া চিকিৎসক ও লটারির টিকিট বিক্রেতাকে জরিমানা

আপডেট : ১৭ জুন ২০২২, ০৮:৫১

নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের পানিহারা গ্রামের ছাদেকুল ইসলাম (৪৮) নামের একজন ভুয়া ডাক্তারকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) ভুয়া ডাক্তারের চেম্বারে অভিযান চালিয়ে তাকে জরিমানা করা হয়। ছাদেকুল ইসলাম উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের পানিহারা গ্রামের মৃত ইসরাইলের ছেলে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ছাদেকুল ইসলাম দীর্ঘ দিন যাবত পানিহারা গ্রামে চেম্বার খুলে ডাক্তার না হয়েও  সাধারণ মানুষকে চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের পানিহারা গ্রামে তার নিজ চেম্বারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মনজুরুল আলম ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নিয়ামতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডা. প্রণব কুমার সাহা।

এদিকে, নওগাঁ জেলার সদরে তাঁত, বস্ত্র ও ক্ষুদ্র কুটির শিল্প মেলার প্রবেশ মূল্যের নামে হাট-বাজার ও গ্রামগঞ্জে অবৈধভাবে লটারির টিকিট বিক্রির অপরাধে অটোরিকশার ম্যানেজার হাজী মোহাম্মদ আহাদুল করিমকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার নিয়ামতপুর উপজেলা সদরের বিভিন্ন জায়গায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে  ৪টি অটোরিকশাকে জরিমানা করা হয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) মনজুরুল আলম বলেন, প্রাথমিক চিকিৎসার একটি প্রশিক্ষণ নিয়েই নিজে একটা চেম্বার দিয়ে দীর্ঘ দিন মানুষকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছিলেন ছাদেকুল ইসলাম নামের ওই ব্যক্তি। তার অপরাধ প্রমাণ হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা এবং চিকিৎসা সেবার বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয়। পুনরায় চিকিৎসা সেবা চালাবেন না মর্মে মুচলেকা দিয়েছেন ছাদেকুল ইসলাম নামে ওই ব্যক্তি।’

সহকারী কমিশনার আরও বলেন, ‘অবৈধভাবে প্রবেশ মূল্যের নামে লটারির টিকিট বিক্রির অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তার কাছ থেকেও পুনরায় টিকিট বিক্রি করবেন না মর্মে মুচলেকা আদায় করা হয়।’

ইত্তেফাক/মাহি