সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

চরভদ্রাসনে ভাঙন শঙ্কায় বিদ্যালয়সহ ৪০ পরিবার

আপডেট : ২৬ জুন ২০২২, ১৫:৩২

ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে চর হরিরামপুর ইউনিয়নের সবুল্লা শিকদারের ডাঙ্গী গ্রামে নতুন করে নদীভাঙন দেখা দেওয়ায় ঝুঁকিতে আছে একটি বিদ্যালয় ও ৪০টি পরিবার। শনিবার (২৫ জুন) দিবাগত রাতে ওই এলাকায় নদীতে ভেঙেছে। 

এদিকে, পানি উন্নয়ন বোর্ডের বালুভর্তি জিও ব্যাগের প্লেসিং ও ডাম্পিংকৃত প্রায় ২০ মিটার জায়গা নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে বলে জানা যায়।পদ্মা নদীতে পানি কিছুটা কমলেও তীব্র স্রোতের কারণে ভাঙন দেখা দিয়েছে বলে ধারণা করছেন এলাকাবাসী। 

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ওই এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের পূর্ব সতর্কতামূলক প্রকল্পের আওতায় জিও ব্যাগের ডাম্পিংকৃত প্রায় ২০ মিটার দৈর্ঘ্য ও ১০ মিটার প্রস্থ এলাকা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।ভাঙন অব্যাহত থাকলে সবুল্লা শিকদারের ডাঙ্গী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যলয়টি যেকোনো সময় নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এতে ওই বিদ্যালয়ের ১৩৫ জন শিক্ষার্থীর লেখাপড়া বাধাগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি ভাঙনের মুখে রয়েছে নদী তীরের ৪০টি পরিবার।

ভাঙনের বিষয়ে নদী পারের বসতি শেক কালাম (৬৫) শঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, ‘সরকারিভাবে এখানে ভাঙন রোধে কাজ চলছে। শনিবার রাত ১১টার দিকে আমি নদী পারে ভাঙন দেখিনি। সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি জিও ব্যাগসহ ওই পারের বড় একটা অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। নতুন করে ভাঙন দেখা দেওয়ায় চিন্তায় আছি স্ত্রী সন্তান নিয়ে কোথায় যাবো!’ 

সবুল্লা শিকদারের ডাঙ্গী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শহিদুল্লাহ বলেন, ‘হঠাৎ ভাঙন দেখা দেবে তা আমি ভাবতে পারিনি। ভাঙন বিষয়ে উর্ধ্বতনদের জানিয়েছি। ১৩৫ জন শিক্ষার্থীর পড়ালেখা চলমান রাখতে ভাঙন রোদে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানাচ্ছি সংশ্লিষ্টদের প্রতি।’

ভাঙন রোধে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, জানতে চাইলে ফরিদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পার্থ প্রতিম সাহা ইত্তেফাককে বলেন, ‘সবুল্লা শিকদারের ডাঙ্গী গ্রামে ভাঙনের খবর আমি পেয়েছি। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। এবছর পদ্মা নদীর ২০০ মিটার স্থায়ী বাঁধের কাজটি সম্পন্ন করা যায়নি।’ ভাঙন রোধে দ্রুত ওই স্থানে বড় আকৃতির জিও ব্যাগের ৩০০ টিউব ফেলা হবে বলে জানান পাউবোর এই নির্বাহী প্রকৌশলী।

ইত্তেফাক/মাহি 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

শিক্ষক খাইরুনকে লাথি মেরে বাইরে চলে যান মামুন: পুলিশ

শোক দিবসের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

তালাবদ্ধ বাথরুম থেকে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর লাশ উদ্ধার 

সিরাজগঞ্জে প্রাথমিকের ১৭৯ শিক্ষকের পদ শূন্য, পাঠদান ব্যাহত 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ

নাজিরপুরে পানিবন্দি মানুষের দুর্ভোগ

রাজশাহীর শিরোইল থেকে সরানো হচ্ছে বাসস্ট্যান্ড

শিক্ষিকার ‘রহস্যজনক মৃত্যু’: স্বামী মামুনকে আদালতে পাঠানো হচ্ছে