বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মসজিদ কমিটির সভাপতি পরিবর্তন নিয়ে ঘুমন্ত ব্যসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

আপডেট : ০১ জুলাই ২০২২, ০৫:৩৫

মসজিদ কমিটির সভাপতি পরিবর্তনকে কেন্দ্র করে নড়াইলের কালিয়ায় কামরুল শেখ (৪০) নামে এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুবৃ‌র্ত্তরা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার পুরুলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। এ সময় আরো ৫ জনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে।

আহতদের প্রথমে নড়াইল সদর হাসপাতাল ও পরে উন্নত চিকিত্সার জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। জানা গেছে, নিহত কামরুল পুরুলিয়া গ্রামের মৃত রশিদ শেখের ছেলে। স্হানীয় চাচুড়ি বাজারে তিনি জুতার ব্যবসা করতেন। 

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, নড়াইলের কালিয়ায় উপজেলার পুরুলিয়া গ্রামের পূর্বপাড়া জামে মসজিদের সভাপতি ছিলেন শাহাদত সর্দার। এক মাস আগে তাকে পরিবর্তন করে কিসলু শেখকে সভাপতি করে মুসল্লিরা। এর জের ধরে গত ২৪ জুন জুমার নামাজের পর সবুর শেখ এবং নয়ন সরদারের সমর্থকদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিমিয় হয়। এরপর থেকেই দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

এর রেশ ধরে গতকাল সকালে ফজরের নামাজের পর নয়ন সরদারের সমর্থকরা অপর পক্ষের প্রধান সবুর শেখসহ তার পরিবারের উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় কামরুলের ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত অবস্হায় তাকে কুপিয়ে হত্যা করে। তাকে বাঁচাতে কামরুলের দুই ভাই জাকির শেখ (৫০) ও ইমরুল শেখ (৩৫) এবং চাচাতো ভাই মানসুর শেখ (৪০) মঞ্জুর শেখ (৩৪) ও চাচা সবুর শেখ (৬০) এগিয়ে এলে তাদেরও কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। 

নিহত কামরুলের বোন মাছুরা বেগম বলেন, আমার ভাই ঘুমিয়ে ছিল। ওরা ঘরের মধ্যে এসে কুপিয়ে মেরে ফেলল। সে বিদেশে যাবে বলে পাসপোর্ট-ভিসা করেছে। তার ছোট ছোট দুইটা ছেলেমেয়ে, তাদের এখন কি হবে?

ইত্তেফাক/জেডএইচডি