বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

খুলনায় কলেজছাত্রকে কুপিয়ে জখম, চিকিৎসাধীন মৃত্যু

আপডেট : ০১ জুলাই ২০২২, ০৯:৩৮

খুলনায় সন্ত্রাসীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে জখম কলেজছাত্র সৈয়দ তাহমিদুন্নবী (২২) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। 

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) দিবাগত রাত ১২টার দিকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে প্রকাশ্য নগরীর দৌলতপর নতুন রাস্তা এলাকায় সন্ত্রাসীরা কলেজছাত্র সৈয়দ তাহমিদুন্নবীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। 

নিহত তাহমিদুন্নবী নগরীর রায়েরমহল কলেজের শিক্ষার্থী এবং দৌলতপুর থানার নতুন রাস্তা সাহাপাড়া মোড় এলাকার সৈয়দ তৌহিদুন্নবীর ছেলে। দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম তাহমিদের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের পরিবার ও প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে নতুন রাস্তা সাহাপাড়া মোড় এলাকার কাঠমিস্ত্রি পলাশ কলেজছাত্র সৈয়দ তাহমিদুন্নবীকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর সেখানে পূর্ব থেকে উপস্থিত ৪/৫ জন সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে তাকে জখম করে। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাহমিদকে উদ্ধার করে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহতের দুলাভাই রবিউল গাজী উজ্জ্বল বলেন, ‘কী কারণে তাহমিদকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে, তা আমরা জানি না। আমরা এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই।’

ইত্তেফাক/মাহি