শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

জ্বালানি সংকটে বিপর্যস্ত শ্রীলঙ্কা

আপডেট : ০১ জুলাই ২০২২, ১৯:৪১

দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে দ্বীপরাষ্ট্রটিতে জ্বালানি তেলের কোনো আন্তর্জাতিক সরবরাহ আসছে না। ফলে দেশজুড়ে দেখা দিয়েছে তীব্র সংকট। ছবিঘরে থাকছে সংকটের কিছু চিত্র। 

প্রেসিডেন্টের বাসভবনে

জ্বালানির দাবিতে প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসের বাসভবনের সামনে গাড়ি নিয়ে জড়ো হয়েছেন একদল বিক্ষোভকারী। বিক্ষোভকারীরা এক পর্যায়ে প্রেসিডেন্টের বাসভবনের সামনের রাস্তা অবরোধ করেন। তাদের সরাতে গেলে এক পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হতে দেখা যায় দুই বিক্ষোভকারীকে। 

গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তি দাবি

গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তি দাবি

প্রেসিডেন্টের বাসভবন অবরোধ করার সময় বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়। তবে এতে বিক্ষোভ থামানো যায়নি। বরং গ্রেপ্তার হওয়াদের মুক্তি দাবিতে পতাকা ও ব্যানার-প্ল্যাকার্ড নিয়ে আবার প্রেসিডেন্টের বাসভবন ঘেরাও করেন আন্দোলনকারীরা। 

গাড়ির লম্বা লাইন

গাড়ির লম্বা লাইন

কোনো পেট্রল পাম্পে তেল নেই। রাস্তার দুপাশে মাইলের পর মাইল জ্বালানি সংগ্রহ করতে আসা গাড়ি এবং মোটরসাইকেল দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়েছে। 

রান্নার গ্যাসও নেই

রান্নার গ্যাসও নেই

গ্যাসের অভাবে রান্না করতে পারছেন না অনেকে। শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোর রাস্তায় একজনকে দেখা যাচ্ছে সাইকেলে রান্নার গ্যাসের একটি সিলিন্ডার নিয়ে বাসায় যাচ্ছেন। 

দুই পা ভরসা

দুই পা ভরসা

জ্বালানি সংকটে রাস্তায় গণপরিবহণও ঠিকমতো চলছে না। ফলে অনেকেই বাসা থেকে বের হয়ে হেঁটেই যাতায়াত করছেন। অর্থনৈতিক পরিস্থিতি স্থবির হয়ে পড়ায় অফিস আদালতেও ঠিকমতো কার্যক্রম চলছে না। 

মোটরসাইকেলের জট

কিছু দূরের পথ যেতে মধ্যবিত্তদের ভরসা মোটরসাইকেল। কিন্তু জ্বালানি না পাওয়ায় অনেকেই চালাতে পারছেন না নিজের মোটরসাইকেল। আবার লাইনে দাঁড়িয়ে না থাকলে তেল পাওয়ার সম্ভাবনাও থাকবে না। এজন্য কাজ বাদ দিয়ে অনেকেই নিজের মোটরসাইকেল নিয়ে ভোর থেকেই দাঁড়িয়ে আছেন লম্বা লাইনে। কখন জ্বালানি পাওয়া যাবে, আদৌ পাওয়া যাবে কিনা জানেন না কেউ। 

বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রী

বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রী

কেবল প্রেসিডেন্টের বাসভবন নয়, ঘেরাওয়ের মুখে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহেও। ছবিতে দেখা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত বাসভবনের সামনে প্রধান বিরোধী দল সামাগি জানা বালাওয়েগায়া-র অঙ্গসংগঠন সামাগি ভানিতা বালাওয়েগায়া-র কর্মীদের ঠেকানোর চেষ্টা করছেন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। 

বিক্ষোভের মাত্রা বাড়ছে

বিক্ষোভের মাত্রা বাড়ছে

বিক্ষোভ আরো ছড়িয়ে দিতে ভূমিকা রাখছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত বাসভবনের সামনে পুলিশের ব্যারিয়ারের সামনে বক্তব্য দিচ্ছেন সামাগি ভানিতা বালাওয়েগায়া-র একজন নারী কর্মী। পুলিশের সামনেই নিজের বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করতে দেখা যাচ্ছে তাকে। 

ভিক্ষুরাও রাজপথে

ভিক্ষুরাও রাজপথে

ছাত্র-জনতার সঙ্গে রাজপথে নেমেছেন বৌদ্ধ ভিক্ষুরাও। কলম্বোতে প্রায় প্রতিদিনই বিক্ষোভ সমাবেশ করছেন তারা। তাদের দাবি- প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসেকে পদত্যাগ করতে হবে। 

 

ইত্তেফাক/এসআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন