বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বিসিএস পরীক্ষা নিয়ে হার্ডলাইনে পিএসসি

আপডেট : ২০ জুলাই ২০২২, ০২:৩৫

বিসিএস পরীক্ষা শতভাগ স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে হার্ডলাইনে অবস্থান গ্রহণ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। বিশেষ করে পরীক্ষার হলে বসে কোনো পরীক্ষার্থী ঘাড় ঘুরালেই বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়েছে। একই সঙ্গে প্রশ্নফাঁস হলে বাতিল হবে পরীক্ষা। আগামী ৪৩তম বিসিএস থেকে কঠোর অবস্থানে থাকবে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি। গতকাল মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) পিএসসিতে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। পিএসসির চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিশনের সদস্যরা, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২৪ জুলাই থেকে ৪৩তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা শুরু হবে। পরীক্ষাকে স্বচ্ছ করার জন্য বেশকিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। পরীক্ষায় কোনো ধরনের অসুদপায় অবলম্বন করলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়াও বেশকিছু ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে পিএসসি। পরীক্ষা হলে অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়িয়ে চলার লক্ষ্যে হাজিরা তালিকায় প্রার্থীর রেজিস্ট্রেশন নম্বর জোড় ও বিজোড় বিন্যস্ত করে এবং প্রতিটি রেজিস্ট্রেশন নম্বর কক্ষওয়ারী দৈবচয়ন ভিত্তিতে সাজিয়ে হাজিরা তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। দৈবচন প্রক্রিয়ায় নিজ আসন এবং কক্ষ চিহ্নিত করা কিছুটা সময় সাপেক্ষ। এ পরিপ্রেক্ষিতে, নিজ আসন এবং কক্ষ চিহ্নিত করার জন্য প্রার্থীদেরকে পর্যাপ্ত সময় হাতে নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হওয়ার জন্য পিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার) অনুরোধ জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৯ অক্টোবর ৪৩তম বিসিএসের প্রিলিমিনারী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উত্তীর্ণ হন ১৫ হাজার ২২৯ জন। এই বিসিএসের মাধ্যমে বিভিন্ন ক্যাডার পদে ১ হাজার ৮১৪ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

ইত্তেফাক/ইআ