বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

অটোয়ায় তিন কন্যার উপাখ্যান মঞ্চায়ন

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২২, ১৫:৩৪

কানাডার টরন্টোতে ১৮টি মঞ্চায়নের পর এবার রাজধানী অটোয়ায় মঞ্চস্থ হলো- তিন কন্যার উপাখ্যান। ম্যানোটিকস্থ রয়েল কানাডিয়ান লিজিওন হলে অন্যথিয়েটার এবং অন্যস্বর-এর ভিন্ন ধারার মৌলিক নাটক ‘তিন কন্যার উপাখ্যান’ প্রদর্শিত হয়।

গত শনিবার সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন  শিশু সাহিত্যিক লুৎফর রহমান রিটন ও অভিনেত্রী আফরোজা বানু। নাটকটি সম্পর্কে সূচনা বক্তব্য রাখেন নাট্যনির্দেশক আহমেদ হোসেন। সঞ্চালনায় ছিলেন শরীফ হাসান।

লুৎফর রহমান তার বক্তব্যে নাটকের কলা-কুশলী এবং আয়োজকদেরকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, ‘প্রবাসে ভাষা ও সংস্কৃতি চর্চা বেশ কষ্টসাধ্য। যারা এ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তাদেরকে উৎসাহ দিতে হবে, পৃষ্ঠপোষকতা করতে হবে’।

অটোয়ায় তিন কন্যার উপাখ্যান মঞ্চায়ন।

আফরোজা বানু বলেন, ‘নাটক একটি দলগত শিল্প। তাই এক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জও বেশি’। অন্যথিয়েটার টরন্টো এবং অন্যস্বর টরন্টো-এর প্রয়াসকে সাধুবাদ জানিয়ে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে তারা নাট্য চর্চার এই ধারা অব্যাহত রাখবে।

নাটক শেষে ছিল প্রাণবন্ত প্রশ্নোত্তর পর্ব যেখানে দর্শকরা নাটক সম্বন্ধে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন এবং নিজেদের মতামত প্রকাশ করেন। এ পর্যায়ে বক্তব্য রাখেন নাট্য সংগঠক শিশির দত্ত এবং আবৃত্তিকার ডালিয়া আহমেদ।

তিনজন নারী। তিনটি চরিত্র। তিনটি স্বগতোক্তি। এ নিয়ে তিনকন্যার উপাখ্যান। তিন কন্যার চরিত্রে ফারিহা রহমান, ফ্লোরা শুচি ডি রোজারিও ও মুনিমা শারমিন অভিনয় করেছেন। তিনটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রকে আত্মস্থ করে খুব সাবলীল অভিনয়ে তারা দর্শকদের মন জয় করেছেন।

আহমেদ হোসেন ইত্তেফাককে বলেন, আমরা শুধু বিনোদনের জন্য নাটক করি না। নাটকের মাধ্যমে সামাজিক দায়িত্ব পালন করি এবং প্রবাসে স্বদেশী সংস্কৃতিচর্চা করি।

 

ইত্তেফাক/মোস্তাফিজ