বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

অর্ধেক সম্পদ হারালেন এশিয়ার সবচেয়ে ধনী নারী  

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২২, ১৯:৪৯

চীনে ক্রমবর্ধমান সম্পদ সংকটের কারণে অর্ধেক সম্পদ হারালেন এশিয়ার সবচেয়ে ধনী নারী ইয়াং হুইয়ান। গত বছরে তার মোট সম্পদের পরিমাণ ছিল প্রায় ২৪ বিলিয়ন ডলার, এর মধ্যে তিনি প্রায় ১৩ বিলিয়ন ডলার হারিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৯জুলাই) মার্কিন সংবাদ মাধ্যমে এই তথ্য জানা যায়। 

৪১ বছর বয়সী ইয়াং হুইয়ান চীনের সবচেয়ে বড় রিয়েল এস্টেট কোম্পানি কান্ট্রি গার্ডেন হোল্ডিংস চালান। ইয়ংয়ের সম্পদের একটি বড় অংশ তিনি তার বাবা ইয়াং গুওকিয়াং এর থেকে পান। তার বাবা ১৯৯০ এর দশকে চীনের গুয়াংডং প্রদেশের ফোশানে কোম্পানিটি গড়েন। 

খবরে বলা হয়েছে, চীনা রিয়েল এস্টেট খাতে ক্রমাগত দরপতন, ক্রেতাবিমূখীতা এবং ঋণ সংকট দেশটির বড় বড় ডেভেলপারদের ক্ষতির মুখে ফেলে। এর ফলে গার্ডেনের স্টকের মুল্য অর্ধেকেরও কম হয়ে আসে বলে ব্লুমবার্গ বিলিয়নিয়ার সূচক জানিয়েছে। 

সিএনএনের তথ্য অনুযায়ী এই ক্ষয়ক্ষতির পরও তিনি এশিয়ার শীর্ষ ধনী নারী হিসেবে অবস্থান করছেন। এই অর্থনৈতিক ক্ষতির পরপর ইয়াং ও তার সমপর্যায়ের চীনা নারী বিলিয়নিয়ারদের সম্পদের পার্থক্য খুবই কমে আসে।

রিপোর্টটিতে বলা হয়, ফ্যান হংওয়াইয়ের সম্পদ মাত্র ১০০ মিলিয়ন ডলার বাড়লেই ইয়াং তার পেছনে পড়ে যাবেন। 

এর অবস্থার কারণে হিসেবে দেখা যায়, এভারগ্রান্দে কোম্পানি তার গত বছরের ঋণ পরিশোধ করেনি এবং অন্যান্য কোম্পানিও তাদের পাওনাদারদের কাছ থেকে সুরক্ষা দাবি করছে।  

এই ডেভেলপারটি মোট ৩০০ বিলিয়ন ডলারের দায়বদ্ধতায় আটকে আছে, যার মধ্যে ১৯ বিলিয়ন ডলার বিদেশি অ্যাকাউন্টে ও প্রাইভেট ব্যাংকগুলোতে রয়েছে।

 

ইত্তেফাক/এসআর