শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নতুন করে অর্থায়ন করবে না বিশ্বব্যাংক

আইএমএফের সঙ্গে শ্রীলঙ্কার আলোচনা ফের শুরু

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২২, ১০:৩৩

অর্থনৈতিকভাবে বিপর্যস্ত শ্রীলঙ্কার ওপর থেকে বিশ্বব্যাংক মুখ ফিরিয়ে নিলেও আইএমএফ কিছুটা আশার আলো দেখিয়েছে। সম্ভাব্য বেইল আউট নিয়ে তাদের সঙ্গে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) আলোচনা ফের শুরু হয়েছে। শুক্রবার দেশটির অর্থ মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এর আগে বিশ্বব্যাংক জানিয়েছিল, শ্রীলঙ্কা তাদের অর্থনীতিকে স্হিতিশীল করতে যদি সুদূরপ্রসারী কাঠামোগত সংস্কার না করে, তবে সেখানে নতুন কোনো অর্থায়নের করবে না তারা। এরপরই আইএমএফের সঙ্গে দেশটির আলোচনা শুরু হয়।

অবশ্য এ ক্ষেত্রে আইএমএফেরও নানা শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছে। তারপরও দ্বীপদেশটি আশা করছে, এই আলোচনার মাধ্যমে নতুন ভালো কিছু আসবে। অর্থনৈতিক দূরাবস্হা থেকে মুক্তি মিলবে। বহুজাতিক দাতা সংস্হাটির (আইএমএফ) সঙ্গে শ্রীলঙ্কার আলোচনা শুরু হয়েছিল সেই এপ্রিলে, তখন গোতাবায়া রাজাপাকসে ক্ষমতায় ছিলেন। বর্তমানে দেশটি সবচেয়ে বাজে অর্থনৈতিক সময় পার করছে। এ কারণে আইএমএফের বর্ধিত তহবিল সুবিধা (ইইএফ) পাওয়ার আশা করছে দেশটি। যদিও এক্ষেত্রেও তাদেরকে বেশকিছু শর্ত মানতে হবে।

কয়েক মাস ধরে জ্বালানি, খাদ্য ও ওষুধের ঘাটতিতে বিক্ষুব্ধ শ্রীলঙ্কানদের প্রবল বিক্ষোভের মুখে গোতাবায়া রাজাপাকসে পদচ্যুত হলে তার জায়গায় চলতি মাসের ১৩ তারিখ প্রেসিডেন্ট পদে বসেন রনিল বিক্রমাসিংহে। ছয় বার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা রনিল শ্রীলঙ্কার ঋণ পুনর্বিন্যাস করতে পারবেন বলেও আশা করছেন।

দ্বীপদেশটির সরকার বলেছে, আইএমএফের সঙ্গে তাদের আলোচনা অত্যন্ত সফল হয়েছে এবং শ্রীলঙ্কা ঋণদাতাদের সঙ্গে চুক্তি নিয়ে ঐকমত্যে পৌঁছাতে উপদেষ্টাদের সঙ্গে কাজ করছে। সোয়া ২ কোটি জনসংখ্যার দেশটি চলতি বছরের শুরুর দিকে কিস্তির টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে ঋণখেলাপি ঘোষিত হয়েছে; হাতে ডলার না থাকায় তারা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য আমদানিতেও হিমশিম খাচ্ছে। এদিকে বিশ্বব্যাংক বলেছে, যদি কাঠামোগত সংস্কার না করা হয়, তাহলে শ্রীলঙ্কায় নতুন করে আর অর্থায়ন করবে না তারা। এক বিবৃতিতে এ কথা জানায় বিশ্বব্যাংক। বিবৃতিতে বলা হয়, বিশ্বব্যাংক শ্রীলঙ্কার বর্তমান সংকটের প্রভাব নিয়ে উদ্বিগ্ন। কিন্তু দেশটির সরকার সেখানে প্রয়োজনীয় সংস্কার না করা পর্যন্ত বিশ্বব্যাংক কোনো অর্থায়ন করবে না।

এতে আরও বলা হয়, একটি কার্যকর সামষ্টিক অর্থনৈতিক নীতি কাঠামো না হওয়া পর্যন্ত বিশ্বব্যাংক শ্রীলঙ্কায় নতুন কোনো অর্থায়নের পরিকল্পনা আপাতত করছে না। বিশ্বব্যাংকের মতে, শ্রীলঙ্কার এই সংকট সৃষ্টিকারী মূল কাঠামোগত কারণগুলোকে চিহ্নিতপূর্বক সেগুলো সমাধান করতে দ্বীপ রাষ্ট্রটির কাঠামোগত সংস্কার প্রয়োজন। তবে নতুন করে অর্থায়ন না করলেও শ্রীলঙ্কায় জরুরিভাবে প্রয়োজনীয় ওষুধ, রান্নার গ্যাস ও স্কুলের খাবারের জন্য ১৬ কোটি মার্কিন ডলার বরাদ্দ দিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

ইত্তেফাক/টিএ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ডুবন্ত ভারতীয় নৌকা থেকে ৯ কর্মীকে উদ্ধার পাকিস্তানের

এশিয়ার সবচেয়ে ধনী নারী যেভাবে তার অর্ধেক সম্পদ খোয়ালেন

এবার থাইল্যান্ডে 'পালালেন' গোটাবায়া  

দেখা হচ্ছে মোদি-শেহবাজের! 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

থাইল্যান্ডে আশ্রয় নিচ্ছেন গোতাবায়া

প্রেসিডেন্টকে হটিয়ে শিবির সরালেন বিক্ষোভকারীরা  

শ্রীলঙ্কায় বিদ্যুতের শুল্ক বাড়ল ২৬৪ শতাংশ

চীনা হামলা প্রতিহত করতে তাইওয়ানের সামরিক মহড়া