শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

লোডশেডিংয়ের কারণে ফুলবাড়ীতে কমেছে চালের উৎপাদন 

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২২, ০০:৩১

দিনাজপুর জেলার অন্যতম ধান ও চাল উৎপাদনকারী উপজেলা ফুলবাড়ী| এখানকার উৎপাদিত ধান-চাল জেলার চাহিদা মিটিয়ে অন্য জেলায়ও সরবরাহ করা হয়ে থাকে| আমন মৌসুম শেষে বাজারে নতুন ধান ওঠার কথা থাকলেও পর্যাপ্ত ধান মিলছে না বলে অভিযোগ মিলমালিকদের| তা ছাড়া লোডশেডিংয়ের কারণে উপজেলার মিলগুলোতে চালের উৎপাদন ২০ থেকে ২৫ শতাংশ কমে গেছে| 

ফুলবাড়ীর ধান ও চালের বাজার ফুলবাড়ী পৌর শহরের নিমতলা মোড়, বারাইহাট, মেলাবাড়ী, আটপুকুর, পুখুরী ও চিন্তামন| এসব ধান ও চালের বাজার ঘুরে জানা গেছে, ৫০ কেজি ওজনের বস্তার মিনিকেট চাল ৩ হাজার থেকে ৩ হাজার ২০০, আটাশ জাতের চাল ২ হাজার ৬০০ থেকে ২ হাজার ৭০০, উনত্রিশ জাতের চাল ২ হাজার ৪০০ থেকে ২ হাজার ৫০০, সুমন স্বর্ণ ২ হাজার ৪০০ থেকে ২ হাজার ৫০০, গুটি স্বর্ণ ২ হাজার ১০০ থেকে ২ হাজার ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে| ফুলবাড়ী চাল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জয় প্রকাশ গুপ্ত বলেন, ধারণা করা হয়েছিল, ভারত থেকে চাল আমদানি করা হলে দেশে চালের দাম কমে আসবে, কিন্তু তা হয়নি|

উপজেলায় ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ৩০০ রাইস মিল রয়েছে| এর মধ্যে অটোরাইস মিল রয়েছে আটটি| এসব অটো রাইস মিল থেকে ধানের মৌসুমে প্রতিদিন গড়ে ১৮০ থেকে ১৮৫ মেট্রিক টন চাল উৎপাদন হয়ে থাকে| বর্তমানে ধানের আমদানি না থাকায় মিলগুলোতে প্রতিদিন ৪০ থেকে ৪৫ মেট্রিক টন চাল উৎপাদন হচ্ছে| ধান থেকে চালের উৎপাদন কমেছে ৫০ থেকে ৫৮ শতাংশ| লোডশেডিংয়ের কারণে মিলগুলো অধিকাংশ সময় বন্ধ থাকায় চাল উৎপাদন কমে গেছে| লোডশেডিংয়ের কারণে মেশিনপত্র নষ্ট হচ্ছে| এর প্রভাবে চাল উৎপাদনে ব্যয় বেড়েছে প্রায় ২০ শতাংশ|

ফুলবাড়ী চাউল কল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বাবু বলেন, লোডশেডিং বাড়ায় উৎপাদন খরচ বেড়েছে প্রায় ২০ শতাংশ| বাজারে ধানের সরবরাহ খুবই কম| মজুতদারেরা ধানের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন| সরকার ভারত থেকে চাল আমদানির অনুমতি দিলেও ডলারের দাম অনেক বেড়েছে| ফলে চাল আমদানি করা হলে দেশের চালের দামের চেয়ে ভারতীয় চালের দাম বেশি পড়ছে| অনেক আমদানিকারকই চাল আমদানি করছেন না| কেউ কেউ আমদানি করলেও কম করে করছেন|

উপজেলা খাদ্যনিয়ন্ত্রক কাজিম উদ্দিন বলেন, ডলারের দাম প্রতিনিয়ত ওঠানামা করে| চাল আমদানির অনুমতি তো নির্দিষ্ট একটি সময়ের জন্য দেওয়া হয়েছে| সব মিলিয়ে চাল আমদানি বাড়লে দেশের ভেতরে চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে থাকবে|

ইত্তেফাক/ইআ