শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ফুটবল চুরির অভিযোগে ৪ শিক্ষার্থীকে পেটালেন প্রধান শিক্ষক 

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২২, ১৯:৫১

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিদ্যালয়ের ফুটবল চুরির অভিযোগ তুলে ৪ শিক্ষার্থীকে পিঠিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে প্রধান শিক্ষক আসাদুজ্জামান লাভলুর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিভাবকরা বিদ্যালয় ঘেরাও করলে তোপের মুখে পড়ে পালিয়ে যান ওই প্রধান শিক্ষক। 

বুধবার (৩ আগস্ট) সকালে উপজেলার পূর্ব বিছনদই ছকেল পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনাটি ঘটেছে। 

আহত শিক্ষার্থীরা হলেন- ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী শাকিব, কাওসার, বায়েজদ ও তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী সিয়াম। অভিযুক্ত আসাদুজ্জামান লাভলু পূর্ব বিছনদই ছকেল পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। 

জানা গেছে, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার (২ আগস্ট) ছুটির পর বিদ্যালয়ের ফুটবল দিয়ে খেলাধুলা করেন কিছু শিক্ষার্থী। পরের দিন (বুধবার) প্রধান শিক্ষক আসাদুজ্জামান লাভলু ওই ফুটবলটি খুঁজে না পেয়ে চুরির অভিযোগ তুলে বাড়ি থেকে ডেকে এনে চার শিক্ষার্থীকে বেধড়ক মারধর করেন। খবর পেয়ে অভিভাবকরা বিদ্যালয় ঘেরাও করলে তোপের মুখে পড়ে ছিটকে পড়েন ওই প্রধান শিক্ষক। 

কাওসারের নানী সবুরা বেগম বলেন, ‘ফুটবল চুরির অভিযোগ তুলে প্রধান শিক্ষক লাভলু আমার নাতিকে মারধর করে। খবর শুনে প্রধান শিক্ষকের নিকট বিষয়টি জানতে চাইলে ওই শিক্ষক আমার সঙ্গেও খারাপ আচরণ করে এবং আমাকে বিদ্যালয় থেকে চলে যেতে বলে।’

স্থানীয় আরেক অভিভাবক মনোয়ারা বেগম একই কথা বলেন। তিনি জানান, এই প্রধান শিক্ষকের ব্যবহার খুব খারাপ। সবার সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন। 

কাওসারের ভাই শাহ আলম বলেন, ‘আমার ভাই চোর নয়, সে মেধাবী শিক্ষার্থী। কিন্তু প্রধান শিক্ষক চুরির অভিযোগ তুলে তাকে মারধর করছে। তিনি কাজটি ঠিক করে নাই। আমরা এই প্রধান শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।’

অভিযোগের বিষয়ে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আসাদুজ্জামান লাভলু বলেন, ‘এরা প্রায়ই বিদ্যালয়ের কিছু না কিছু চুরি করে। তাই একটু শাসন করা হয়েছে।  তবে আজকে একটু মারধর করা বেশি হয়েছে।’ 

এবিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা (এটিও) বেলাল হোসেন বলেন, ‘প্রধান শিক্ষককে বলে দিবো তিনি আপনাদের সঙ্গে দেখা করে খরচাপাতি দেবে এখন।’ 

হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজির হোসেন বলেন, ‘অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে  প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

ইত্তেফাক/মাহি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সিরাজগঞ্জে পৃথক স্থান থেকে দুইজনের লাশ উদ্ধার 

গারো পাহাড় রক্ষায় বিশ্ব হাতি দিবসে র‌্যালি 

হিলিতে অর্ধেকে নেমেছে কাঁচা মরিচের দাম 

পদ্মায় নিখোঁজের একদিন পর আরেক শিশুর লাশ উদ্ধার

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ঘুষের টাকা ফেরত চেয়ে লাশ বাসায় রেখে অনশন

বিদ্যালয় মাঠে জলাবদ্ধতা, শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত

মাদক মামলায় ২ ভারতীয় নাগরিক কারাগারে

সাপের কামড়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু