শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মোবাইল দেওয়ার কথা বলে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ 

আপডেট : ১০ আগস্ট ২০২২, ১৭:৫৮

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় মোবাইল ফোন দেওয়ার কথা বলে এক কিশোরীকে (১৬) পালাক্রমে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তার প্রেমিক মেহেদী হাছানসহ কয়েকজন যুবকের বিরুদ্ধে। এঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদি হয়ে সোমবার (৮ আগস্ট) রাতে ভাঙ্গা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। 

পুলিশ সোমবার রাতেই অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে মালিগ্রাম থেকে মুন্সি আসাদুজ্জামান (৬০) নামের একজনকে আটক করেছে। তিনি স্থানীয় বাসিন্দা মৃত মুন্সী আব্দুস সাত্তারের ছেলে। ধর্ষণের শিকার কিশোরীর বাড়ি আজিমনগর ইউনিয়নের ব্রাহ্মণপাড়া গ্রামে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রবিবার (৭ আগস্ট) সকালে মোবাইল ফোন দেওয়ার কথা বলে ওই কিশোরীকে তার প্রেমিক মেহেদী হাছান মালিগ্রামের একটি মার্কেটে ডেকে আনেন। এরপর ওই প্রেমিক তার কয়েকজন বন্ধুকে নিয়ে কিশোরীকে সারাদিন বিভিন্ন এলাকায় ঘুরায়। সন্ধ্যা হওয়ার পর মালিগ্রামের আছাদুজ্জামানের দোতলা বাসায় নিয়ে ৪/৫ জন মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। 

বুধবার (১০ আগস্ট) ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘এ ঘটনায় ভাঙ্গা থানায় একটি মামলা হয়েছে। কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষা জন্য ফরিদপুর মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার রাতে ওই কিশোরীর মা বাদি হয়ে ভাঙ্গা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত একজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতার করতে পুলিশ কাজ করছে।’

ইত্তেফাক/মাহি