শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ফেসওয়াশের বদলে সাবান ব্যবহারে যত অপকার

আপডেট : ১১ আগস্ট ২০২২, ১৭:৫৫

বাসায় ফিরতেই মনে পড়লো আজও ফেসওয়াশ কেনা হয়নি। তাহলে মুখ ধোবেন কিভাবে? এখন তো আবার সেই বাইরে দোকানে যেতে হবে। কিন্তু শরীর কুলোচ্ছে না। উপায় কি তবে? ওয়াশরুমে গিয়ে গায়ে মাখার সাবান দিয়ে ধুয়ে নিলেই হলো। এভাবেই অনেকে সাবান দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলেন। ফেশওয়াশ ফুরোতেই সাবান দিয়ে মুখ ধোয়াটা আদতে কি ভালো অভ্যাস? চলুন জেনে নেই। 

ফেশওয়াশ ত্বকে জমে থাকা ধুলো, তেল বা ময়লা সহজে তুলে ফেলে

একথা মনে রাখতে হবে, ফেশওয়াশ ত্বকে জমে থাকা ধুলো, তেল বা ময়লা সহজে তুলে ফেলে। ফেশওয়াসে যে পরিমাণ সাবান উপাদান হিসেবে থাকে তা মুখে রুক্ষতা বাড়ায় অনেকক্ষেত্রে। সেজন্যে অনেকে ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এতে হারানো আর্দ্রতা কিছুটা হলেও ফিরে আসে।

কড়া সাবান ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক করে ফেলে

অপরদিকে সাবানে থাকে তীব্র ক্ষার। যা ফেসওয়াশের থেকে অনেক বেশি। এমনটা কেন হয়? সচরাচর হাত কিংবা শরীরের অন্যান্য অংশের ত্বকের ব্যাকটেরিয়া দূর করতেই সাবানে অতিরিক্ত ক্ষার থাকে। মুখের ত্বক কোমল ও স্পর্শকাতর হওয়ায় সাবান ত্বকের জন্যে ভালো নয়। বিশেষত কড়া মানের সাবান বা এন্টিসেপটিক সাবান ব্যবহার মোটেও ভালো না। যদিও এ নিয়ে বেশকিছু ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে। অনেকে মনে করেন সাবান ব্যবহারে ত্বকের তৈলাক্তভাব দূর হয়। আবার অনেকে মনে করেন ব্রণ দূর হয়ে যাবে। আদতে ব্যাপারটি এমন নয়। কড়া সাবান ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক করে ফেলে। আবার ব্রণ বাড়ার পাশাপাশি আক্রান্ত অংশ জ্বালাপোড়া কিংবা চুলকুনি হতে পারে। তাই বাড়িতে ফেসওয়াশ এর মজুদ রাখুন।   

ইত্তেফাক/আরএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন