সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি

বাসের বদলে যাত্রীর চাপ তিনগুণ ট্রেনে

আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০২২, ১২:২০

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ট্রেনযাত্রীর সংখ্যা দ্বিগুণ-তিনগুণ বেড়ে গেছে। গত কয়েক দিন ধরেই ফুলবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনে বেড়ে গেছে যাত্রীর চাপ। বাড়তি যাত্রীদের সামাল দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে স্টেশন কর্তৃপক্ষকে।  

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ঢাকাগামী আন্তঃনগর নীলসাগর, দ্রুতযান ও একতা প্রত্যেক ট্রেনেই আসন সংখ্যার দ্বিগুণ থেকে তিনগুণ যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। শুধু ঢাকাগামী নয়, ফুলবাড়ী-খুলনা, ফুলবাড়ী-রাজশাহী, ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর ও ফুলবাড়ী-সান্তাহার রুটে চলাচলকারী আন্তনগর সীমান্ত এক্সপ্রেস, রূপসা, বরেন্দ্র এক্সপ্রেস, বাংলাবান্ধা এক্সপ্রেসসহ প্রত্যেক ট্রেনেই দ্বিগুণ-তিনগুণ বেড়েছে যাত্রীর চাপ। 

তবে বেসরকারি খাতে ফুলবাড়ী-রাজশাহী ও ফুলবাড়ী-খুলনার মধ্যে চলাচলকারী মেইল ট্রেন উত্তরা ও খুলনায় যাত্রীর চাপ বেড়েছে আরও বেশি। সমান তালে যাত্রীর চাপ বেড়েছে ফুলবাড়ী-খুলনা ও ফুলবাড়ী-রাজশাহীর মধ্যে চলাচলকারী লোকাল ট্রেনগুলোতেও।   

যাত্রীরা জানান, তেলের দাম বাড়ার কারণে বাস ভাড়া বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই নিরুপায় হয়ে ট্রেনেই চলাচল করতে হচ্ছে। 

কয়েকজন যাত্রী জানান, তারা টিকিট পেলেও সিট পাননি, তারপরও কষ্ট করে দাঁড়িয়েই ঢাকায় যাওয়ার জন্য ৭/ ৮ ঘণ্টার দূরত্বের পথ পাড়ি দিতে হবে।

মূলত, ভোগান্তি এড়াতেই বাসের পরিবর্তে ট্রেনের জন্য স্টেশনে ভিড় জমাচ্ছেন অধিকাংশ যাত্রী। স্বাভাবিকের তুলনায় প্রায় ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ বেশি যাত্রী নিয়ে গত দুদিন ধরে চলাচল করছে ট্রেনগুলো বলে ধারণা করছেন স্থানীয় রেল ভিভাগের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা। 

ফুলবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনে ঢাকাগামী যাত্রী মোকলেছুর রহমান বলেন, ‘জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাসেও ভাড়া বৃদ্ধি পাওয়ায় বাসে না গিয়ে কম টাকা দিয়ে ট্র্রেনে ঢাকা যাচ্ছি। জ্বালানি তেলের দাম একবারে এত টাকা বৃদ্ধি করা মোটেই ঠিক হয়নি।’

ফুলবাড়ী থেকে দিনাজপুরগামী বাসযাত্রী নূরে আলম সিদ্দিকী বলেন, ‘কয়েক দিন আগেও বাসে ৬০ থেকে ৭০ টাকায় যাতায়াত করতাম। কিন্তু এখন সেই ভাড়া নিচ্ছে ৯০ টাকা। বাস ভাড়াটা অত্যাধিক বেশি হয়েছে। এত টাকা দিয়ে বাসে চলাচল করা কষ্টকর হয়ে পড়েছে।’ 

ফুলবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাস্টার ইশ্রাফিল সরকার বলেন, ‘জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কিছুটা প্রভাব রেলওয়ের ওপর পড়েছে। এতে ২৫ শতাংশ যাত্রী বেশি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রতিদিন যাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। রেলস্টেশনে ঈদে যেমন যাত্রীর ভিড় লক্ষ করা যায়, বর্তমানে ঠিক সেই রকম ভিড় লক্ষ করা যাচ্ছে।’ 

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আতাউর রহমান মিল্টন বলেন, ‘জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় বাসের যাত্রীদের চাপ এখন রেলওয়ের ওপর কিছুটা পড়ছে। তবে ফুলবাড়ী থেকে বিভিন্ন রুটের আসন সংখ্যা বাড়ানোর জন্য প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি মহোদয়ের সঙ্গে কথা বলে  প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

ইত্তেফাক/মাহি