শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভারতে হুমকি-চাঁদাবাজি করে পাকিস্তানে ৩ কোটি রুপি পাচার  

আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০২২, ২০:২৩

ভারতে হরিয়ানার চারজন আইনপ্রণেতাকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছে বিহারের সাত বাসিন্দা। তারা পাকিস্তান ও পশ্চিম এশিয়ার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত চাঁদাবাজ ও প্রতারকদের একটি দলের অন্তর্ভুক্ত। গত আট মাসে পাকিস্তানে কমপক্ষে ২ কোটি ৭০ লাখ রুপি পাঠিয়েছে তারা। পাঞ্জাব ও দিল্লির বেশ কয়েকজন রাজনীতিবিদও তাদের কাছ থেকে হুমকি পেয়েছিলেন। শনিবার (১৩ আগস্ট) দেশটির পুলিশ এই তথ্য নিশ্চিত করে। খবর এনডিটিভির।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রাথমিকভাবে জুনের এই কলগুলো পাঞ্জাবি গায়ক সিধু মুসেওয়ালা হত্যার পেছনে দলের সঙ্গে যুক্ত। এছাড়াও ফোন দেওয়া কিছু সন্ত্রাসীরা পাঞ্জাবি ভাষায় কথা বলেছিল।  তারা বলেছিল, মুসেওয়ালার মতো তাদেরও একই পরিণতি হবে।  

পুলিশ এসবের একটি লিঙ্কের  ব্যাপারে কথা এখনও বলেনি। কিন্তু বলেছে, এই প্রতারকরা লোকদের কাছ থেকে টাকা আদায় করার জন্য ভয় দেখাতে এমন কার্যকলাপ করেছে। 

পুলিশ আরও বলেছে, গ্রেপ্তারকৃত এই ছয় প্রতারক শুধু চাঁদাবাজি কলই করেনি বরং কিছু লোককে এইভাবে প্রতারিত করেছে যে তারা লটারি বা প্রতিযোগিতা যেমন 'কৌন বানেগা ক্রোড়পতি' জিতেছে। যাতে তারা প্রতারকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা স্থানান্তর করে। 

তারা গরীব লোকদের তাদের নামে অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য অর্থ প্রদান করতো। ওই অ্যাকাউন্ট থেকে তারা তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে অর্থ গ্রহণ করতো। 

হরিয়ানা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের (এসটিএফ) পুলিশ কর্মকর্তা সন্দীপ ধানকর বলেন, গত আট মাসে টাকা গ্রহণের জন্য বিহারে ৭২৭টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা হয়। 

পাকিস্তানে তাদের সহযোগীদের কাছে তারা 'হাওয়ালা' রুট দিয়ে টাকা পাঠিয়েছে বলে অভিযোগ এসেছে। সীমানার ওপারে শারীরিকভাবে অর্থ সরানোর দরকার পরে নেই। 

ইত্তেফাক/এসআর