শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ

নিরাপদ আবাসনের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ স্থগিত, ৭ দিনের আল্টিমেটাম 

আপডেট : ১৭ আগস্ট ২০২২, ১৯:৪৬

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজে নিরাপদ হলের দাবীতে একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ রেখে অধ্যক্ষের কার্যালয় ঘেরাও করে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেছে শিক্ষার্থীরা। 

বুধবার (১৭ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে অধ্যক্ষ কার্যালয় ও প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে শিক্ষার্থীরা। বিকেল সাড়ে ৪ টায় কলেজ প্রশাসনের ৭ দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে আন্দোলন স্থগিত করে শিক্ষার্থীরা। 

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মনিরুজ্জামান শাহীন বলেন, শিক্ষার্থীদের বিকল্পস্থানে রাখার ব্যবস্থা করে নতুন করে হল নির্মাণের বিষয়ে মন্ত্রণালয় থেকে যে সিদ্ধান্ত নেবে সেই অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী তাহসীন আহম্মেদ বিক্ষোভ কর্মসূচি ৭ দিনের জন্য স্থগিত করার ঘোষণা দিয়ে জানান, আমরা ৮ ঘণ্টা আন্দোলন করেছি এবং আমরা ৭ দিনের সময় দিয়েছি। অধ্যক্ষ স্যার আমাদের আশ্বস্ত করেছেন আগামী ৭ দিনের মধ্যে আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিত করাসহ দৃশ্যমান কার্যক্রম গ্রহণ করবেন। এর কারণে স্থগিত করেছি। এর মধ্যে যদি কোন ব্যবস্থা না নেওয়া হয়, তাহলে আমাদের জীবনের দাবিতে আবারো কঠোর আন্দোলন শুরু করবো। 

অধ্যক্ষের কার্যালয় থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, মেডিক্যাল কলেজের তিনটি ছাত্রাবাস ও তিনটি ছাত্রী নিবাসে মোট এক হাজার ৪২৮ জন শিক্ষার্থীর জন্য আবাসিক সিট রয়েছে। এর মধ্যে ২ নং ছাত্রাবাসের তৃতীয় তলা বসবাসের অনুপযোগী ঘোষণা করেছে গণপূর্ত দপ্তর। ১নং ছাত্রী নিবাস সম্পূর্ণ বসবাসের অনুপযোগী। ২নং ছাত্রাবাসের তৃতীয় তলার ১৯টি কক্ষের ১৩৬ জন ও ১নং ছাত্রী নিবাসের ৮০টি কক্ষের ৩২০ জন আসন বিহীন হয়ে পড়েছেন। 

প্রথম বর্ষের ছাত্র এহসান উল্লাহ জানান, ২ নং ছাত্রাবাসের একটি কক্ষে গত রাতে পলেস্তরা খসে পড়ে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন দুই জন সহপাঠী। এদের মধ্যে একজন আহত হয়েছেন। নিরাপদ হলের দাবিতে আমরা সকাল ৮টা থেকে বিক্ষোভ শুরু করি একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ রেখে।

ইত্তেফাক/এমএএম