বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

কূটনৈতিক সম্পর্ক চালু করবে ইসরায়েল ও তুরস্ক

আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০২২, ১৪:০০

দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের উন্নতি হয়েছে। তাই ইসরায়েল ও তুরস্ক জানিয়েছে, তারা আবার রাষ্ট্রদূত নিয়োগ করবে।পূর্ণ কূটনৈতিক সম্পর্ক চালু করছে ইসরায়েল ও তুরস্ক। তারা একে অপরের দেশে রাষ্ট্রদূতও নিয়োগ করবে। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর অফিস বুধবার এই কথা জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুই দেশই নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক আরও গভীর করবে। আর্থিক, বাণিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক সম্পর্ক জোরালো করা হবে। এর ফলে আঞ্চলিক স্থায়িত্ব জোরদার হবে। তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার একটা ধাপ হলো রাষ্ট্রদূত নিয়োগ করা। ইসরায়েল এই ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়েছে। তুরস্কও তেলআভিভে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

ফিলিস্তিন নিয়ে উত্তেজনা সত্ত্বেও ২০১৮ সালে তুরস্ক ইসরায়েল থেকে তাদের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠায়। গাজা সীমান্তে প্রবল বিক্ষোভ এবং তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অ্যামেরিকার দূতাবাস জেরুসালেমে সরিয়ে নেয়ার পর এই সিদ্ধান্ত নেয় তুরস্ক। 

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বুধবার জানিয়েছেন, তারা ফিলিস্তিনের বিষয়টি মোটেই ছেড়ে দিচ্ছেন না। রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে তাদের বার্তা বিশ্বের কাছে যাওয়া জরুরি। গত কয়েক মাস ধরে তুরস্ক ও ইসরায়েল দুই পক্ষই সম্পর্ক উন্নতির জন্য চেষ্টা করেছে। .

গত মার্চে দুই দেশের প্রেসিডেন্ট আস্কারায় দেখা করেছিলেন। বুধবার ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্বাভাবিক হওয়ার প্রভাব আঞ্চলিক স্থায়িত্বের উপর পড়বে।

ইত্তেফাক/এএইচপি