রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ইউক্রেন সীমান্তের কাছে রুশ অস্ত্র ডিপোতে আগুন

আপডেট : ২০ আগস্ট ২০২২, ০০:৪০

ইউক্রেন সীমান্তের কাছে একটি গোলাবারুদ ডিপোতে আগুন লাগার পর বৃহস্পতিবার রাশিয়ার দুটি গ্রাম খালি করা হয়েছে, স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এ কথা জানায়। এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

মস্কোর দখলকৃত  ইউক্রেনীয় উপদ্বীপ ক্রিমিয়ার একটি সামরিক ঘাঁটি ও যুদ্ধাস্ত্র ডিপোতে বিস্ফোরণের কয়েকদিন পরেই এই অগ্নিকান্ড ঘটে। রাশিয়া এই বিস্ফোরণকে কিয়েভের "নাশকতা" বলে অভিহিত করেছে।

এই অঞ্চলের গভর্ণর ভ্যাচেস্লাভ গ্ল্যাডকভ এক বিবৃতিতে বলেছেন, ইউক্রেন সীমান্ত থেকে ৫০ কিলোমিটারের কম দূরে বেলগোরোড প্রদেশের টিমোনোভো গ্রামের কাছে একটি গোলাবারুদ ডিপোতে আগুন লাগে।
কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি, তবে টিমোনোভো এবং নিকটবর্তী গ্রামের সোলোটির বাসিন্দাদের "নিরাপদ দূরত্বে সরানো হয়েছে"। তিনি বলেন, কর্তৃপক্ষ আগুনের কারণ অনুসন্ধান করছে।

সোস্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা এক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি বিশাল আগুনের গোলা ঘন কালো ধোঁয়াসহ আকাশে ছড়িয়ে পড়ছে। আরেকটি ভিডিওতে দূরে পরপর কয়েকটি বিস্ফোরণ দেখা গেছে।

ইউক্রেনের কাছে রাশিয়ার সামরিক স্থাপনায়  বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণের মধ্যে বৃহস্পতিবার আগুনের ঘটনা অন্যতম।

এই মাসের শুরুতে, ক্রিমিয়ার সাকি সামরিক বিমানঘাঁটির কাছে একটি বোমা বিস্ফোরণে একজন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হয়। ওই বিষ্ফোরণের ঘটনার কয়েকদিন পরে, ক্রিমিয়ার একটি গোলাবারুদ ডিপোতে বিস্ফোরণ ঘটে।

দ্বিতীয় বিষ্ফোরণের ঘটনার ক্ষেত্রে, মস্কো স্বীকার করে যে সেটি একটি ‘নাশকতা’ ছিল।

ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরু হওয়ার পর থেকে, মস্কো বারবার ইউক্রেনীয় বাহিনীকে তার মাটিতে বিশেষ করে বেলগোরোড অঞ্চলে হামলা চালানোর জন্য দোষারোপ করে আসছে।

গত মাসে, প্রাদেশিক রাজধানী বেলগোরোডে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়। স্থানীয় কর্তৃপক্ষের মতে, ওই হামলায় চারজন নিহত হয়েছে।

এই মাসের শুরুর দিকে, গ্ল্য্যাডকভ দুটি হেলিকপ্টার দিয়ে বেলগোরোডে একটি জ্বালানি ডিপোতে হামলা চালানোর জন্য ইউক্রেনকে দায়ী করে।

ইত্তেফাক/এএইচপি