শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

আলফাডাঙ্গায় ঝুঁকি নিয়ে সেতু পারাপার

আপডেট : ২২ আগস্ট ২০২২, ১৭:১২

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গার টগরবন্দ ইউনিয়নের সাত গ্রামের মানুষের উপজেলার সঙ্গে যোগাযোগের অন্যতম কাউসার সেতু ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে গেছে। সেতুর দুই পাশের রেলিং ভেঙে পলেস্তারা উঠে গেছে। ফলে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। 

জানা যায়, তিনটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক, স্কুল-কলেজগামী ছাত্রছাত্রীসহ এলাকাবাসীকে এই রেলিং ভাঙা সেতু দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হতে হচ্ছে। যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন টগরবন্দ ইউনিয়নের চাপুলিয়া, চর আজমপুর, চরডাঙ্গা, চাপুলিয়া, চরধানাইড়, শিকিপাড়া, চাপুলিয়া গুচ্ছগ্রামের প্রায় ৩০ হাজার মানুষ।

এলাকাবাসী জানায়, ১৯৮২-৮৩ সালে এই সেতুটি নির্মাণ করা হয়েছে।

ইউপি সদস্য কালু ফকির জানায়, সেতুর রেলিং ভেঙে যাওয়ায় এলাকার মানুষকে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হতে হচ্ছে। সেতুটি দ্রুত নির্মাণ করা জরুরি। 

টগরবন্দ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান মিয়া জানান, আমাদের প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলাতে যাতায়াত করতে হচ্ছে। উপজেলার আইনশৃঙ্খলা মিটিংয়ে একাধিক বার সেতুটি নির্মাণের দাবি জানিয়েছি। 

এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী মো. রাহাত ইসলাম জানান, সেতুটি নির্মাণের জন্য সয়েল টেস্টের কাজ শেষ হয়েছে। ডিজাইনের কাজ শেষ হলে যে কোনো সময় টেন্ডার হয়ে যাবে। 

ইত্তেফাক/এআই