শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

উন্নয়ন সহযোগীদের অর্থছাড় বেড়েছে

আপডেট : ৩১ আগস্ট ২০২২, ০২:২৬

চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে উন্নয়ন সহযোগীদের অর্থছাড় বেড়েছে। অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) হালনাগাদ তথ্যানুযায়ী, জুলাইয়ে মাসে বাংলাদেশে চলমান বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ৪৮ কোটি ৮০ লাখ ডলারের ঋণ ছাড় করেছে উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা ও দেশগুলো। দেশীয় মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৪ হাজার ৬৮৪ কোটি টাকা। এর মধ্যে অনুদান হিসেবে এসেছে ৯১ লাখ ২০ হাজার ডলার। আর ৪৭ কোটি ৮৯ লাখ ডলার ছাড় করা হয়েছে ঋণ হিসেবে। 

জুলাইয়ে ছাড় হওয়া এই বৈদেশিক ঋণ গত অর্থবছরের একই মাসের তুলনায় ১৫ কোটি ৯৩ লাখ ডলার বা ৪৮ শতাংশ বেশি। গত অর্থবছরের জুলাই মাসে ছাড় হয়েছিল ৩২ কোটি ৮৬ লাখ ডলার। গত অর্থবছরের ১২ মাসে রেকর্ড ১ হাজার কোটি ডলার বা ১০ বিলিয়ন ডলার ছাড় হয়েছিল। অবশ্য ঐ অঙ্কের মধ্যে কোভিড-১৯ মহামারি থেকে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের জন্য হওয়া বাজেট সহায়তার অর্থও ছিল। চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরে সরকার বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আওতায় ঋণ ও অনুদান মিলে মোট ৯৩ হাজার কোটি টাকা বা প্রায় ১০ বিলিয়ন ডলার পাওয়ার লক্ষ্য ঠিক করেছে। 

ইআরডির কর্মকর্তারা জানান, গত বছর করোনার প্রভাবে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতি ছিল। তাছাড়া অর্থবছরের শুরুতে এমনিতেই এডিপি বাস্তবায়ন গতি কম থাকে। তবে সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে প্রকল্প বাস্তবায়নের গতি বৃদ্ধি পেলে বৈদেশিক ঋণের ছাড়ও বৃদ্ধি পাবে।

ইআরডির তথ্যানুযায়ী, গত জুলাই মাসে বাংলাদেশের জন্য এককভাবে সর্বোচ্চ ২০ কোটি ডলার ছাড় করেছে জাপান। চীন ছাড় করেছে ১০ কোটি ২২ লাখ ডলার। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) ৬ কোটি ৩৭ লাখ ডলার, ভারত ৫ কোটি ৮৫ লাখ ডলার এবং বিশ্ব ব্যাংক ২ কোটি ২২ লাখ ডলার ছাড় করেছে। এ বছর জুলাই মাসে অর্থ ছাড় বেশি হলেও নতুন প্রতিশ্রুতি এসেছে কম। মাত্র ১৫ লাখ ৩০ হাজার ডলার ঋণের একটি চুক্তি হয়েছে অর্থবছরের প্রথম মাসে।

ইত্তেফাক/ইআ