সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বিশ্রাম নয়, অনুশীলনকেই প্রাধান্য দিলেন সাবিনারা

আপডেট : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৯:৩৫

মালদ্বীপের বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয় দিয়ে সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে দুর্দান্ত সূচনা করেছে বাংলাদেশ। অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের জোড়া গোলে গতকাল সেই জয়ের পর আজ কোন অনুশীলন হওয়ার কথা ছিলনা নেপাল সফররত বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের। সাবিনা-মারিয়াদের আজ বিশ্রামে রাখারই ঘোষণা দিয়েছিলেন দলের প্রধান কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর বিশ্রাম নেয়নি বাংলাদেষের মেয়েরা। আজ সকাল নয়টায় আর্মড পুলিশ মাঠে পরিপূর্ন অনুশীলন করেছে সাবিনারা। বিশ্রামের পরিবর্তে আজও দলের অনুশীলন করার কারণ পরের ম্যাচে আরও বেশি গোলে জয়ের ক্ষুধা। 

দলীয় একটি সূত্র থেকে জানা যায়, মালদ্বীপের বিপক্ষে গতকালের জয়টি প্রত্যাশা অনুযায়ী হয়নি বাংলাদেশের ম্যানেজমেন্টের। আরও বড় ব্যবধানে জেতা উচিত ছিল বলেই মনে করেন টিম ম্যানেজমেন্ট। তাই আজও বিশ্ররামের পরিবর্তে সকাল সকাল অনুশীলনের আয়োজন করা হয়।

আরও জানা যায়, অনূর্ধ্ব-১৭ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে শ্রীলঙ্কায় থাকা বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৭ পুরুষ দলের সাথে অবস্থান করছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলি। সেখান থেকেই মেয়েদের এমন জয়ের সংবাদে খুব বেশি খুশি হতে পারেননি তিনি। তাই ম্যাচের পরদিন সকালেই মেয়েদের অনুশীলনে যাবার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি ও টিম ম্যানেজমেন্ট। কারন, পাকিস্তানের বিপক্ষে আগামী ম্যাচে আরও বড় ব্যবধানে জয় চাই বাংলাদেশের।

সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে 'এ' গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গে রয়েছে ভারত, পাকিস্তান ও মালদ্বীপ। অন্যদিকে, 'বি' গ্রুপে আছে স্বাগতিক নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও ভূটান। ভারত নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়েছে ৩-০ গোলে। মালদ্বীপের বিপক্ষেও একই ব্যবধানে জিতেছে বাংলাদেশ। আরও বেশি গোল দিতে পারলে গোল ব্যবধানে ভারতের চেয়ে এগিয়ে থাকতে পারতো সাবিনারা। 

'এ' গ্রুপের রানার্সআপ হলে 'বি' গ্রুপের সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়ন শক্তিশালী নেপালের মোকাবেলা করতে হবে লাল সবুজের মেয়েদের। তাই গোল ব্যবধান বাড়ানোর জন্য মালদ্বীপ ও পাকিস্তানকেই বেছে নিয়েছিলেন টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলি। কিন্তু প্রথম ম্যাচে সেই লক্ষ্য পূরণ করতে পারেনি বাংলাদেশ দল। এখন পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে বড় ব্যবধানে জয় পেলে গ্রুপ পর্বে ভারতের সঙ্গে ড্র করলেও গোল ব্যবধানে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে পারবে বাংলাদেশ। তাই পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে বড় জয়ের প্রত্যাশা করছেন স্মলি। 

তবে আপতত দল এসব নিয়ে চাপে নেই জানিয়ে অধিনায়ক সাবিনা খাতুন বলেন,‘পাকিস্তানের বিপক্ষে বড় ব্যবধানেই জিততে হবে, এমন কোন চাপ নেই আমাদের। তবে আমাদের জিততে হবে এটাই জানি।’ 

এর আগে সাফের মঞ্চে কখনও পাকিস্তানের মুখোমুখি হয়নি বাংলাদেশ। ২০১০ সালে ঢাকা সাউথ এশিয়ান গেমসে মেয়েদের ফুটবলে পাকিস্তানকে ২-০ গোলে হারিয়েছিল লাল সবুজের জার্সিধারীরা। প্রায় অচেনা প্রতিপক্ষ নিয়ে সাবিনা বলেন,‘আমরা গতকাল ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের খেলা দেখেছি। আমাদের পক্ষে পরের ম্যাচে পাকিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারানো সম্ভব।’

ইত্তেফাক/এসএস/এএইচপি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন