রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

অসচ্ছল ৪১ বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবার পাচ্ছে ‘বীরনিবাস’

আপডেট : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩:০৫

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ৪১টি অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বসবাসের জন্য নির্মাণ হচ্ছে বাসস্থান ‘বীরনিবাস’। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আবাসন নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় উপজেলায় মোট ৪১টি বীরমুক্তিযোদ্ধা পরিবার পাচ্ছেন এ সুবিধা। এসব আবাসনের নাম দেওয়া হবে ‘বীরনিবাস’।

১ম পর্যায়ে সুবিধাভোগী হরিল্যাখুর গ্রামের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল ইসলাম জানান, কিছু পাবার আশায় তিনি মুক্তিযুদ্ধ করেননি। দেশকে ভালোবেসে তিনি জীবনের পরোয়া না করে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন মুক্তিযুদ্ধে। দেশ স্বাধীনের পর একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তিনি একটি ছোট চাকরি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। জীর্ণ মাটির বাড়িতে পরিবার নিয়ে কষ্টে বসবাস করতেন। তিনি কখনও ভাবেননি শেষ বয়সে এসে একটি পাকা বাড়িতে বসবাস করতে পারবেন। সে স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে। তিনি সরকার ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।    

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেফাউল আজম বলেন, ‘১ম পর্যায়ে ১২টি আবাসন প্রকল্পের নির্মাণকাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে অল্প কিছুদিনের মধ্যে আনুষ্ঠানিক বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কাছে বাড়িগুলো বুঝিয়ে দেওয়া হবে। অপর দিকে ২৯টি আবাসনের টেন্ডার কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। অচিরেই এ বাড়িগুলোর কাজ শুরু করবে ঠিকাদার কর্তৃপক্ষ। ১ম পর্যায়ের বাড়িগুলো ১৩ লাখ ৪৩ হাজার ৬১৮ টাকা ও ২য় পর্যায়ের বাড়িগুলো ১৪ লাখ ১০ হাজার ৩৮২ হাজার টাকা ব্যায়ে নির্মিত হচ্ছে।’ 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ সোম বলেন, ‘বর্তমান সরকার জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সবোর্চ্চ সম্মান ও গুরুত্ব দিয়েছেন। রাষ্ট্রীয়ভাবে সব সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে এ পরিবারগুলোকে। এরই ধারাবাহিকতায় উপজেলাতে যেসব মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জমি আছে কিন্তু বাড়ি করার সামর্থ নেই, জীর্ণ বাড়িতে অনেক কষ্টে জীবনযাপন করছিলেন, এমন অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নির্বাচিত করে তাদের বাসস্থান নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। ৩ কক্ষ ও  সুবিশাল বারান্দাসহ বসবাসের জন্য সব সুযোগ-সুবিধা রয়েছে বাড়িগুলোতে। কষ্টে থাকা পরিবারগুলো এখন শান্তিতে এসব বাড়িতে বসবাস করতে পারবেন। নিঃসন্দেহে এটি বর্তমান সরকারের একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ।’

ইত্তেফাক/এইচএম