বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

রাজধানীতে র‌্যাবের অভিযান ২৯ ছিনতাইকারী গ্রেফতার

আপডেট : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:২০

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছিনতাইকারী সন্দেহে ২৯ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। র‌্যাবের ভাষ্য, তারা সবাই সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য। এরা দীর্ঘদিন ধরে রাতে পথচারীদের টাকা, মোবাইল ফোনসহ গুরুত্বপূর্ণ মালামাল ছিনিয়ে নিতো। 

এসব তথ্য নিশ্চিত করে র‌্যাব-৩ এর সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) ফারজানা হক বলেন, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত রাজধানীর রাজধানীর কমলাপুর, শাহজাহানপুর, মতিঝিল, মুগদা, পল্টন, হাতিরঝিল এবং তেজগাঁও এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার কমলাপুর এলাকা থেকে এক নারীর গলা থেকে স্বর্ণের চেইন ছিনতাই করে দৌড়ে পালানোর সময় ধাওয়া করে ছিনতাইকারী  আরিফ হোসেনকে (২৯) আটক করা হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে আরও অনেক ছিনতাইকারীর তথ্য পাওয়া যায়। এরপর ওইসব ছিনতাইদের গ্রেপ্তার করতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালানো হয়। 

র‌্যাব জানায়, শাহজাহানপুর, মতিঝিল, মুগদা, পল্টন, হাতিরঝিল এবং তেজগাঁও থানাধীন এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে ছিনতাইকারী চক্রের বাকি ২৮ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন ইসলাম (২২), বাবু (২৭), টিটু (২০), শরিফ (২১), নুরে আলম (২২), মুরাদীল মুস্তাকিম ওর‌ফে মুরাদ (১৯), জালাল (১৯),  হৃদয়  (১৮), হোসেন ওর‌ফে মটু (১৯), জয় (১৯), সুমন (২১), ইয়াছিন রাব্বি (২০), টিটু (৪০), পরান (২৬), রাসেল (২২), জীবন সরদার(২১), শুক্কুর (২০), সাগর হোসেন (২২), মাসুম খান (১৯), মিহির তালুকদার (২১) ও হোসেন (২২)। তাদের কাছ থেকে ১৮টি মোবাইল ফোন, সাতটি সুইচ গিয়ার, দু’টি এন্টি কাটার, ছয়টি বেড, একটি কাঁচি, ছুরি, ক্ষুর, বিষাক্ত মলমের কৌটা, স্বর্ণের চেইন এবং নগদ ৩২৪ টাকা জব্দ করা হয়।

ওই নারীর চেইন উদ্ধারের বিষয়ে র‌্যাব-৩ এর পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ভুক্তভোগী নারী মিতুল রায় রনি তার স্বামীর সঙ্গে কমলাপুর এলাকা থেকে বাসায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে রিকশার জন্য সড়কে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় হঠাৎ এক ছিনতাইকারী ওই নারীর গলা থেকে টান দিয়ে স্বর্ণের চেইন ছিনতাই করে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। তখন টহলরত র‌্যাবের একজন সদস্য এ ঘটনা দেখে ছিনতাইকারীর পেছনে দৌড়াতে থাকে। কিছুদূর যাওয়ার পরই ছিনতাইকারীকে ধরে ফেলেন তিনি। এরপর জিজ্ঞাসাবাদে আটক ব্যক্তি চেইন ছিনতাইয়ের কথা স্বীকার করে।

তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‌্যাব জানতে পেরেছে, আটক ছিনতাইকারী চুরি-ছিনতাইয়ের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জড়িত। তাকে আটক করে ছিনতাইকৃত চেইনটি ভুক্তভোগী নারীকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

আটক হওয়া ছিনতাইকারীদের জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের উদ্ধৃতি দিয়ে র‌্যাব জানায়, তারা রাতে রাজধানীর বাসস্ট্যান্ড, রেল স্টেশন এলাকায় ঘোরাফেরা করতে থাকে। যাত্রীদের টার্গেট করে কখনো দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে কখনও বিষাক্ত চেতনানাশক ওষুধ মেশানো খাবার খাইয়ে সর্বস্ব কেড়ে নিত।  এছাড়া কখনও ভিড়ের মধ্যে যাত্রীদের চোখে-মুখে বিষাক্ত মলম বা মরিচের গুঁড়া বা বিষাক্ত স্প্রে করে ছিনতাই করে থাকে। তাদের ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 

ইত্তেফাক/এমএএম