সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

আইসিসির সাবেক আম্পায়ার আসাদ রউফ আর নেই

আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:৪৩

মারা গেলেন আইসিসি এলিট প্যানেলভুক্ত সাবেক পাকিস্তানি আম্পায়ার আসাদ রউফ। ৬৬ বছর বয়সে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো সাবেক এই পাকিস্তানি আম্পায়ারের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। 

ক্রিকইনফো তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, পাকিস্তানের লাহোরে হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়ে মারা গেছেন আসাদ রউফ। এলিট প্যানেলের সাবেক এই আম্পায়ার পরিচালনা করেছেন ৬৪টি টেস্ট, ১৩৯ ওয়ানডে আর ২৮ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।

আসাদ রউফ প্রথম ওয়ানডে পরিচালনা করেন ২০০০ সালে। ওয়ানডে প্যানেলের অন্তর্ভুক্ত হন ২০০৪ সালে। পাকিস্তানি এই আম্পায়ার নিজের প্রথম টেস্ট পরিচালনা করেন এরপরের বছরই। পাকিস্তানের অন্যতম খ্যাতিমান এই আম্পায়ার আইসিসির এলিট প্যানেলের সদস্য হন ২০০৬ সালে।

আলিম দারকে সঙ্গে নিয়ে রউফ পাকিস্তানের আম্পায়ারদের মান অনেকটা বাড়িয়েছেন বলেই ধারণা করা হয়। তবে ২০১৩ সালে আইপিএলে আম্পায়ারিংয়ের দায়িত্ব পালনের সময় স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়ে পড়ার পরই তিনি বাদ পড়েন আইসিসির এলিট প্যানেলভুক্ত আম্পায়ারদের তালিকা থেকে। আইপিএল সেই মৌসুম শেষের আগেই তিনি ভারত ত্যাগ করেন। সেই বছরই আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আম্পায়ার তালিকা থেকে তার নাম সরিয়ে দেয় আইসিসি। আইসিসি অবশ্য জানিয়েছিল, শুধু তদন্তে তার ওপর অভিযোগ আসার কারণেই এমনটা করা হয়নি। 

অভিযোগের পর আসাদ অবশ্য বরাবরই আত্মপক্ষ সমর্থন করে গেছেন। তিনি জানিয়েছিলেন, আকসুর তদন্তেও তিনি সব ধরনের সহযোগিতা করতে প্রস্তুত। ২০১৬ সালে বিসিসিআই তাকে ৪টি দুর্নীতির দায়ে ৫ বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা দেয়।

আম্পায়ারিংয়ে আসার আগে ক্রিকেটার হিসেবেও নিজেকে গড়েছিলেন রউফ। পাকিস্তানের জাতীয় ব্যাংক ও রেলওয়েজের হয়ে ৭১টি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলেছিলেন তিনি। 

সাবেক এই আম্পায়ারের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে পাকিস্তানের সাবেক উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান কামরান আকমল টুইট করেন, ‌‘আইসিসির সাবেক আম্পায়ার আসাদ রউফের মৃত্যুর খবর জেনে দুঃখিত। আল্লাহ তাকে মাগফিরাত দান করুন এবং তার পরিবারকে সবর দান করুন।’

ইত্তেফাক/এসএস/এইচএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন