রোববার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

হাতির পায়ে পৃষ্ট হয়ে কৃষকের মৃত্যু 

আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:০৮

কয়েক দিনের ব্যবধানে আবারও মানুষের সঙ্গে বন্যহাতির ধাওয়া-পাল্টার ঘটনা ঘটেছে। হাতির পায়ে পৃষ্ট হয়ে নালিতাবাড়ী সংলগ্ন হালুয়াঘাট সীমান্তে নওশেদ আলী নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ভোরে ফসল রক্ষায় এলাকাবাসী হাতিকে তাড়া করতে গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত হাজি নওশেদ আলী হালুয়াঘাট উপজেলার ভূবনকুড়া ইউনিয়নের কড়ইতলী গ্রামের বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী ও বনবিভাগের লোকজন জানান, গত কয়েক মাস যাবত বন্যহাতির বিশাল একটি দল শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী, ঝিনাইগাতি, শ্রীবরদী উপজেলায় আবার কখনোবা ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটের সীমান্তবর্তী পাহাড়ি গ্রামগুলোতে খাদ্যের সন্ধানে হারা দিচ্ছে। বিশেষ করে সাম্প্রতিক সময়ে নালিতাবাড়ী সীমান্তের পাহাড়ি গ্রামগুলোতে এদের উৎপাত ও বিচরণ বেড়ে গেছে।

শুক্রবার রাতে নালিতাবাড়ীর উপজেলার সীমানা পেড়িয়ে হালুয়াঘাটের কড়ইতলী গ্রামে আমনের ফসল খেয়ে পা দিয়ে মাড়িয়ে সাবাড় করতে হানা দেয় বন্যহাতির দল। এসময় ফসল রক্ষায় রাত জেগে স্থানীয়রা পাহাড়া দেওয়ার পাশাপাশি বন্যহাতি তাড়া করছিলেন। দফায় দফায় হাতির সঙ্গে মানুষের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার একপর্যায়ে রাত সোয়া দুইটার দিকে নওশেদ আলীর দিকে তেড়ে আসে বন্যহাতির দল। পরে তাকে শুঁড়ে পেঁচিয়ে মাটিতে ফেলে পায়ে পৃষ্ঠ করে গুরুতর আহত করে। তাড়া খেয়ে হাতি চলে যাওয়ার পর স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান। 

এ ব্যাপারে গোপালপুর বনবিভাগের বিট কর্মকর্তা মাজাহারুল ইসলাম বলেন, ‘বন্যহাতি তাড়াতে গিয়ে গভীর রাতে হাতির পায়ে পৃষ্ট হয়ে নিহত হয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রশাসনের লোকজন ঘটনাস্থল পরির্দশ করেছেন। এ ব্যাপারে হালুয়াঘাট থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।’

ইত্তেফাক/এইচএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন